নীড় পাতা » বান্দরবান » বান্দরবানে মাল্টার ভালো ফলনে খুশি চাষিরা

বান্দরবানে মাল্টার ভালো ফলনে খুশি চাষিরা

বান্দরবান সদর উপজেলায় ২৫ হেক্টর জমিতে বারি মাল্টা- ১ জাতের মাল্টার আবাদ হয়েছে। এর মধ্যে ১০ হেক্টর জমিতে এবার ভালো ফলন হয়েছে। এ বছর হেক্টর প্রতি ফলন হয়েছে ৩-৪ মেট্রিক টন। সদর উপজেলার, ক্যামলংপাড়া, গ্যাৎসিমানীপাড়া, ৯ মাইল, বসন্ত পাড়া, চান্দারপাড়া ও চিম্বুকে বারি মাল্টা-১ এর আবাদ হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাধ্যমে প্রদর্শনী আকারে কৃষকদের বিনামূল্যে চারা কলম ও সার সরবরাহ করা হয়েছে এবং রোপন পদ্ধতি ও পরিচর্যার বিষয়ে কৃষক প্রশিক্ষণও প্রদান করা হয়েছে। ফলে কৃষক তার সুফল পেতে শুরু করেছে।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরে পুরাতন বাগানের পরিচর্যার জন্য ইতোমধ্যে বিনামূল্যে সার ও বালাইনাশকসহ নতুন বাগান সৃজনের জন্য আরও ৫০ জন্য কৃষককে বাগান আকারে চাষের জন্য বিনামূল্যে চারা কলম ও সার বিতরণসহ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। আর তাই উচ্চমূল্যের ফসল হিসেবে স্থানীয় ও দেশীয় বাজারে বারি মাল্টা- ১ এর চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ভবিষ্যতে বিদেশী মাল্টার আমদানীর পরিমাণ অনেকটাই কমে যাবে আশাবাদ স্থানীয় চাষিদের।

ক্যামলং বকের কৃষক অংজাইউ মার্মা জানান, ‘কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহায়তায় ৩ বছর আগে চারা কলম ও সার পেয়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ক্যাহ্লাউ মার্মার পরামর্শে ২ একর জমিতে বারি মাল্টা- ১ এর চাষ করি। এ বছর প্রথমবার ফল ধরেছে। ইতোমধ্যে বিশ হাজার টাকার ফল বিক্রয় করেছি। এ বছর কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় আরও ৫০ শতক জমিতে বারি মাল্টার আবাদ করেছি।’

বান্দরবান সদর উপজেলার কৃষি অফিসার মো. ওমর ফারুক জানান, বারি মাল্টা জাতের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে ফল পরিপক্ক হলে ও খোসা সবুজ ও হালকা হলুদের রঙের হয়। ফলের নিচের অংশে পয়সার মত চাপ থাকে। কাঁচা অবস্থাও খুব রসালো ও সুমিষ্ট হয়। তিনি জানান, বান্দরবানের বাজারে ডজন প্রতি ১৫০ থেকে ২০০ টাকায় বিক্রয় হচ্ছে মাল্টা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কাপ্তাইয়ে ওষুধ সম্পর্কে মতবিনিময় সভা

বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি কর্তৃক নকল, ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সম্পর্কে জনসচেতনতা ফিরিয়ে আনতে …

Leave a Reply