নীড় পাতা » ফিচার » অরণ্যসুন্দরী » বর্ষবরণেও পর্যটকশূণ্য রাঙামাটি

বর্ষবরণেও পর্যটকশূণ্য রাঙামাটি

Pic-for-Leadবর্ষবরণ বা বিদায়,বছরের এসময়টায় পর্যটকে মুখর থাকে পাহাড়ী শহর রাঙামাটি,তার উপর এখন ভরা মৌসুম। পর্যটনের এমন ভরা মৌসুমেও পর্যটক নেই পাহাড়, হ্রদ ও ঝরণার শহর রাঙামাটিতে। টানা অবরোধসহ রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে রাঙামাটির পর্যটন স্পটে পর্যটক নেই বললেই চলে। এতে পর্যটক শিল্পের ওপর নির্ভরশীল ব্যবসা প্রতিষ্ঠাগুলো বন্ধের উপক্রম হচ্ছে। পুরাতন বছরকে বিদায় জানিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে প্রতিবছরই প্রচুর পর্যটক এ অঞ্চলে আসে।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে দেশের সার্বিক পরিস্থিতিতে পর্যটকশূন্য কাটাতে হচ্ছে রাঙামাটির পর্যটন স্পটগুলোতে। পর্যটক শূন্য থাকায় হতাশ পর্যটন কর্পোরেশন ও হোটেল মালিকরা।

রাঙামাটি পর্যটন কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপক আখলাকুর রহমান জানান, গত মাসেও আমরা বসে ছিলাম. এমাসও শেষ হতে যাচ্ছে; এক হিসাবেই বসে দিন কাটাচ্ছি। কোনো রুম বুকিং নেই। পর্যটক মৌসুমে কোনো পর্যটক আসতে না পারায় এই খাতে লোকসানের সম্ভাবনা রয়েছে। প্রতিবছর রাঙামাটি পর্যটন কর্পোরেশন সরকারকে প্রচুর রেভিনিউ জমা দিলেও এবছর তা সম্ভব নাও হতে পারে। তবে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা তৈরি হলে পর্যটক আসবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আবাসিক হোটেল হিল পার্কের ম্যানেজার স্বপন শীল বলেন, সারাবছর আমরা এসময়টির জন্য বসে থাকি। কিন্তু রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণে এবছর আমাদেরকে ব্যবসায়িক ক্ষতির শিকার হতে হবে। গত এক মাস ধরে বসে থাকা ছাড়া আরো কোনো কাজ ছিলো না। এখন কর্মচারী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনা করছি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জনপ্রিয় হচ্ছে ‘তৈলাফাং’ ঝর্ণা

করোনার প্রভাবে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল খাগড়াছড়ির পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র। তবে টানা বন্ধের পর এখন খুলেছে …

Leave a Reply