নীড় পাতা » ব্রেকিং » বর্তমান মেয়রের দাবি অস্বীকার সাবেক মেয়রের

বর্তমান মেয়রের দাবি অস্বীকার সাবেক মেয়রের

৯ নভেম্বর সংবাদ সম্মেলনে পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম চৌধুরী ভূট্টো ও দুই কাউন্সিলর রবিউল আলম রবি ও শিব প্রসাদ মিশ্রর দেয়া বক্তব্য অস্বীকার করে সেইসব বক্তব্যকে ‘মিথ্যা তথ্য ও অ-সত্য বক্তব্য’ বলে দাবি করেছেন সাবেক মেয়র হাবিবুর রহমান। বুধবার সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেছেন তিনি। এর আগে ৯ নভেম্বর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদকের একটি চিঠির জবাবে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রসঙ্গক্রমে বর্তমান পৌর পরিষদ দায়িত্ব নেয়ার পর পৌরসভার আর্থিক অবস্থা সম্পর্কে বেশ কিছু বক্তব্য দিয়েছিলেন পৌর মেয়র এবং ওই দুই কাউন্সিলর।
বিবৃতিতে সাবেক মেয়র হাবিবুর রহমান দাবি করেন,সংবাদ সম্মেলনে দেয়া পৌর মেয়রের বক্তব্যের অধিকাংশ তথ্যই মিথ্যা,অসত্য,যা পৌরবাসিকে বিভ্রান্ত করেছে। বিগত পাচ বছরের অপরিপক্কতা,অযোগ্যতা,ব্যর্থতাকে আড়াল করার জন্যই তিনি এজাতীয় বক্তব্য দিয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি।
বিবৃতিতে, বর্তমান মেয়র বিদেশী অর্থায়নে পরিচালিত প্রকল্পের ভাষা বোঝেন কিনা তাতে সন্দেহ প্রকাশ করে সাবেক এই মেয়র বলেন,আওয়ামীলীগ বা বর্তমান সরকার যদি তাকে অর্থ না দেয়,তা হলে মেয়রের ১০০ বা ২০০ কোটি টাকা কে দিলেন পৌরবাসি জানতে চায়। এটা তার স্ববিরোধী বক্তব্য বলেও দাবি করেন তিনি।
সাংবাদিক সম্মেলনে বর্তমান মেয়রের দায়িত্ব নেয়ার পর ৫ হাজার ৭৫০ টাকা পাওয়ার বক্তব্যের বিরোধীতা করে তিনি একে সম্পূর্ণ মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত দাবি করে বলেন,২০১১ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি দায়িত্ব হস্তান্তরকালে বিপুল পরিমাণ অর্থ রেখে যান। তিনি বিএমডিএফ প্রকল্পে ৬ কোটি টাকা,শেওয়াবি প্রকল্পে ৪০ লক্ষ টাকা,বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে ৩০ লক্ষ টাকা,রাজস্ব তহবিল সহ বিভিন্ন ব্যাংকে ৬০ লক্ষ টাকা রেখে যাওয়ার পাল্টা দাবি করেছেন।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সাবেক এই মেয়র আরো দাবি করেন, বর্তমান মেয়রের স্বেচ্ছাচারিতার কারণে রাজস্বখাতে আয়কৃত ২০ কোটি টাকার কোন হিসাব নাই। তার অপরিকল্পিত চিন্তা ভাবনার কারণে পৌর হলটি পর্যন্ত নাই, পৌরপ্রাঙ্গন এখন বালির মাঠে পরিণত হয়েছে। ’
বিবৃতিতে হাবিবুর রহমান পৌরসভার দুই কাউন্সিলর রবিউল আলম ও শিব প্রসাদ মিশ্রর বক্তব্যের বিরোধীতা করে বলেন,ইউজিপ প্রকল্পে আবেদন করি নাই,এমন কথাটি সত্য নয়।’
কাউন্সিলর রবিউল আলম রবি সম্পর্কে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে হাবিবুর রহমান বলেন, রবিউল আলম পৌরসভার উন্নয়নে এক মায়া কান্না করছেন,অথচ তিনি পৌরসভার সম্পত্তি দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে ভাড়া প্রদানপূর্বক মাসিক প্রায় ত্রিশ হাজার টাকা অবৈধভাবে উপার্জন করে আসছেন,যা মেয়র দেখেও না দেখার ভাণ করে আসছেন।’

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ‘আগামীতে মেয়রের সকল অনিয়ম দুর্নীতির চিত্র জনসম্মুখে তুলে ধরা হবে’ বলেও বর্তমান মেয়র সাইফুল ইসলাম ভূট্টোকে সতর্ক করে দেন সাবেক মেয়র হাবিবুর রহমান।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধীতার প্রতিবাদ রাঙামাটিতে

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধীতার নামে ‘উগ্রমৌলবাদ ও ধর্মান্ধগোষ্ঠীর জনমনে বিভ্রান্তির …

২ comments

Leave a Reply

%d bloggers like this: