বন্ধ হয়ে গেলো কাপ্তাই হ্রদে মাছ ধরা

DSCN1625পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ হয়ে গেলো দক্ষিন পূর্ব এশিয়ার সর্ববৃহৎ কৃত্রিম জলাধার কাপ্তাই হ্রদে সব ধরণের মাছ আহরণ,বাজারজাতকরণ,শুকানো এবং পরিবহন।

১৮ মে রাত বারোটা থেকেই জেলা প্রশাসন থেকেদেয়া এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়। ফলে অন্তত: তিনমাস সময়কালের জন্য বন্ধ হয়ে গেলো পার্বত্য রাঙামাটিসহ আশেপাশের জেলাগুলোর মাছের চাহিদা পূরণের অন্যতম এই উৎসটি। আসন্ন রোজার মাসেও তাই কাপ্তাই হ্রদের সুস্বাদু হ্রদের মাছের স্বাদ আহরণ থেকে বঞ্চিত হবেন স্থানীয়রা।

প্রতিবছর এই সময় হ্রদের জলে ছাড়া কার্প জাতীয় মাছের পোনার সুষ্ঠু বেড়ে উঠা এবং মাছের বংশবৃদ্ধির বিষয়টি মাথায় রেখে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

মাছ ধরা বন্ধকালিন সময়ে হ্রদের উপর নির্ভরশীল ২১ হাজার ৫০০ পরিবারকে ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে মাসে ৪০কেজি করে চাল প্রদান করবে সরকার,এমন তথ্য জানিয়েছেন হ্রদটির ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িত বাংলাদেশ মৎস উন্নয়ন কর্পোরেশন এর ব্যবস্থাপক কমান্ডার মাইনুল ইসলাম।

কাপ্তাই হ্রদে মাছধরা বন্ধকালিন সময়ে অবৈধভাবে মৎস শিকার বন্ধ রাখতে গত বছরের মতো এবারোকোস্টগার্ড নিয়োগের পাশাপাশি সেনাবাহিনী,বিজিবি,পুলিশ এবং মোবাইল কোর্টের সহায়তা নেয়া হবে বলে ও জানান তিনি।

ইতোমধ্যেই হ্রদের গুরুত্বপূর্ণ তিনটি পয়েন্ট কাইন্দ্যার মুখ,লংগদু এবং বুড়িঘাট এলাকায় কোস্টগার্ড মোতায়েন করা হয়েছে।

মাছ ধরা বন্ধকালীন সময়ে রাঙামাটি জেলাসীমানায় অবস্থিত সকল বরফকলও অনির্দিষ্ট সময়কালের জন্য বন্ধ থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মো: সামসুল আরেফিন সাক্ষরিত এক আদেশে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

মাছ ধরা বন্ধ হওয়ার কারণে সদা প্রাণচঞ্চল রাঙামাটির বিএফডিসির ঘাট এখন অনেকটাই স্থবির হয়ে পড়েছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কারাতে ফেডারেশনের ব্ল্যাক বেল্ট প্রাপ্তদের সংবর্ধনা

বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন হতে ২০২১ সালে ব্ল্যাক বেল্ট বিজয়ী রাঙামাটির কারাতে খেলোয়াড়দের সংবধর্না দিয়েছে রাঙামাটি …

Leave a Reply