নীড় পাতা » ব্রেকিং » ফের আলোচনায় মেডিকেল কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় !

ফের আলোচনায় মেডিকেল কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় !

Medical-collegeরাঙামাটি মেডিকেল কলেজ নিয়ে দীর্ঘদিন নিস্তব্ধতার পর আবারো পাহাড়ের রাজনীতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ এবং রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কার্যক্রম স্থগিতের দাবিতে আগামী ১০ জানুয়ারি রাঙামাটিতে সড়ক ও নৌ পথ অবরোধ ডেকেছে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)। পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের অবরোধ ঘোষণায় এবার নড়েচড়ে বসেছে অন্যান্য সংগঠনগুলোও। ছাত্রলীগ, ছাত্রদলসহ মেডিকেল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটি অবরোধ ঠেকাতে একইদিন মাঠে থাকবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। এই নিয়ে আবারো পাহাড়ি জনপদ রাঙামাটি উত্তপ্ত হতে যাচ্ছে।
রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ জানায়, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের ভর্তি প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ১০ জানুয়ারি মেডিকেলের কলেজের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ক্লাস শুরু করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানাবেন। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন শিক্ষকও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের পাশেই পাঁচতলা বিল্ডিংয়ে রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। ক্লাস শুরুর জন্য সব প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে।
এদিকে সব প্রক্রিয়া শেষ হলেও মেডিকেল কলেজের কার্যক্রমসহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে রোববার রাঙামাটিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সন্তু লারমা সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ। সমাবেশে বক্তারা পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাঙামাটি কলেজের কার্যক্রম স্থগিত রাখার দাবি জানান এবং একই দাবিতে আগামী ১০ জানুয়ারি রাঙামাটি জেলায় সড়ক ও নৌপথ অবরোধ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে এই ছাত্র সংগঠনটি। বক্তারা আরো বলেন, এরপরও সরকার মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম স্থগিত না করলে লাগাতার অবরোধ, হরতালসহ আরো কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। এসময় পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জ্যোতিষ্মান চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সহ সাধারণ সম্পাদক অরুণ ত্রিপুরা, যুব সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাপস চাকমা, সহ-সভাপতি রিপেশ চাকমা প্রমূখ।medical-college-02

পিসিপি’র অবরোধের প্রতিক্রিয়ায় রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ এমরান রোকন বলেন, ছাত্রলীগ শিক্ষার্থীদের অধিকারের পক্ষে কথা বলে। এছাড়া রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রস্তাবিত প্রকল্প। তাই এই প্রকল্পের কার্যক্রম যেকোনো মূল্যেই শুরু করা হবে। তিনি বলেন, যারা অস্ত্রের মুখে পাহাড়ি-বাঙালি সবাইকে জিম্মি করে রাখে, যারা সাধারণ জনগণের সন্তানদের উচ্চ শিক্ষা থেকে বঞ্চিত রাখার চেষ্টা করে তাদেরকে প্রতিহত করা হবে। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে ১০ জানুয়ারি রাঙামাটির সকল জনগণকে সাথে নিয়ে ছাত্রলীগ মাঠে থাকবে।

রাঙামাটি জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু সাদাৎ মোঃ সায়েম বলেন, মেডিকেল কলেজ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় দ্রুত চালুর দাবিতে অতীতে আমরা সব ছাত্রসংগঠনগুলোকে নিয়ে আন্দোলন করেছি। এতে আমরা সফল হয়েছি। একইভাবে কেউ অবরোধ ডেকে মেডিকেল কলেজের কার্যক্রম বন্ধের চেষ্টা করলে আবারো সকল ছাত্রসংগঠন মিলে শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার অধিকার আদায়ের জন্য মাঠে অবস্থান গ্রহণ করবো। তিনি দ্রুত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরুরও দাবি জানান।

রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ এবং রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন পরিষদের আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর আলম মুন্না বলেন, শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ ধ্বংসের জন্য যে অবরোধ ডাকা হয়েছে তা আমরা যেকোনে মূল্যেই প্রতিহত করবো। রাঙামাটির পাহাড়ি-বাঙালি সকল জনগণকে সাথে নিয়ে ১০ জানুয়ারি রাজপথে অবস্থান করে পিসিপি’র অবরোধ প্রতিহত করা হবে।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক সামসুল আরেফিন বলেন, আমরা সকলের সহযোগিতা কামনা করছি। তবে কেউ যেন আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে না পারে তার জন্য সর্বাত্মক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এছাড়া শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের জন্যও সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি জানান, ১০ জানুয়ারি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মেডিকেল কলেজের ক্লাসরুমের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কাপ্তাইয়ে করোনা সংক্রমণ কমছে

প্রশাসনের কঠোর নজরদারি এবং থানা পুলিশের তৎপরতায় রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে করোনা সংক্রমন হার কমছে। কাপ্তাই উপজেলা …

Leave a Reply