নীড় পাতা » পাহাড়ে নির্বাচনের হাওয়া » ‘প্রহসনের নির্বাচন প্রতিহত করা হবে’

‘প্রহসনের নির্বাচন প্রতিহত করা হবে’

Bandarna-BnP-PiC_2বান্দরবানে জেরী-মাম্যাচিং’র নেতৃত্বাধীন বিএনপির দুগ্রুপের মিছিল-সমাবেশের মধ্যে দিয়ে শান্তিপূর্ন অবরোধ কর্মসূচী পালিত হচ্ছে। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে শহরের গুরুত্বপূর্ন স্থানগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। বুধবারও নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদে বান্দরবান-চট্টগ্রাম প্রধান সড়কের হলুদিয়াসহ কয়েকটি স্থানে রাস্তায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে এবং গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক অবরোধ করে রাখে বিএনপি-জামায়াতসহ ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা।
জেলা শহরের বাসস্টেশন এলাকায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির উপজাতীয় বিষয়ক সম্পাদক মাম্যাচিং এর নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল, ছাত্রদল, মহিলাদলসহ বিএনপির একাংশের নেতাকর্মীরা অবস্থান নেয়। শহরে অবরোধের সমর্থনে খন্ড খন্ড মিছিল করেছে সংগঠনগুলো। পরে বাসস্টেশনে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেত্রী মাম্যাচিং, জেলা যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমান মিঠুন, সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক নেজাম উদ্দিন চৌধুরী, পৌর যুবদলের সভাপতি আইয়ুব খান। Bandarna-BnP-PiC_3

অপরদিকে বাসস্টেশনের অপরপ্রান্তে জেলা বিএনপির সভাপতি সাচিংপ্রু জেরীর নেতৃত্বে ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরাও অবস্থান নেয়। জোটের নেতাকর্মীরা শহরের বিভিন্নস্থানে খন্ড খন্ড মিছিল শেষে বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি সভাপতি সাচিংপ্রু জেরী, সহ-সভাপতি অধ্যাপক ওসমান গনি,সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান, জামায়াতের পৌর সভাপতি গোলাম মোস্তফা তাজ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাবিকুর রহমান জুয়েল, ছাত্র শিবিরের সভাপতি মোহাম্মদ হারুনসহ ১৮ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা। পৃথক সমাবেশে বক্তারা বলেছেন, প্রহসনের নির্বাচন প্রতিহত করা হবে। নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধিনেই সকলের কাছে গ্রহনযোগ্য নির্বাচন আয়োজন করতে হবে। আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধিনে কোনোদিনও সুষ্ঠ নির্বাচন হতে পারে না। সরকারী টাকায় আওয়ামীলীগ সভানেত্রী নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে নিজেই সংবিধান লংঘন করেছে। অথচ সংবিধানের দোহাই দিয়ে একদলীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। কোনো ধরণের ষড়যন্ত্রের নির্বাচনে অংশ নেবে না বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোট। দেশের জনগনও ষড়যন্ত্রের নির্বাচন মেনে নেবে না।

এদিকে নাশকতা সৃষ্টির আশংকায় বান্দরবানে জেলা শহরসহ উপজেলাগুলো পর্যায়েও গুরুত্বপুর্ন স্থানগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ আহম্মেদ।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বান্দরবান সীমান্তে দু’টি মাইন ধ্বংস

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে কৃষকের উদ্ধার করা দুইটি স্থল মাইন ধ্বংস করেছে সেনাবাহিনীর বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ দল। …

Leave a Reply