নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া ছাত্রসংগঠনগুলোর স্মারকলিপিতে যা আছে…

প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া ছাত্রসংগঠনগুলোর স্মারকলিপিতে যা আছে…

Rangamati-pic..2রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ স্থাপনে সরকারি সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন এবং দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানদুটোর শিক্ষা কার্যক্রম এই বছরই চালুর দাবিতে রবিবার রাঙামাটিতে মিছিল সমাবেশ করে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দিয়েছে রাঙামাটির প্রায় সবগুলো ছাত্র সংগঠন। ছাত্রদল,ছাত্রলীগ,ছাত্রইউনিয়নহ আঞ্চলিক কয়েকটি ছাত্রসংগঠনের এই কর্মসূচীতে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে যে স্মারকলিপি প্রদান করা হয় তাতে নিম্মোক্ত বিষয়গুলো উল্লেখ ছিলো। স্মারকলিপিটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘রাঙ্গামাটি জেলার সকল ছাত্র সমাজের পক্ষ থেকে সশ্রদ্ধ সালাম গ্রহন করবেন। রাঙ্গামাটি জেলার ছাত্র এবং পার্বত্য এলাকাবাসীর উচ্চতর শিক্ষা ও উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য কিছু দাবী এবং উক্ত বিষয় সমুহের সুষ্ঠ সমাধানের জন্য আপনার নিকট এই স্মারকলিপি জেলা প্রশাসক, রাঙ্গামাটি মহোদয়ের মাধ্যমে প্রেরন করিলাম।

এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের স্বাধীনতা, আমাদের প্রিয় মাতৃভুমি বাংলাদেশ। অপরুপ সৌন্দর্য্যের লীলাভূমি আমাদের প্রিয় রাঙ্গামাটি। এখানে যেমন আছে অফুরন্ত সৌন্দর্য্য তেমনি আছে এখানকার মানুষের অনেক সমস্যা। আমরা জানি আপনি পার্বত্য চট্টগ্রামকে বিশেষ নজর দিয়ে এ এলাকার উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় রাঙ্গামাটিতে আপনার স্বদিচ্ছার প্রতিফলন হিসেবে আমরা দেখছি রাঙ্গামাটিতে মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছেন। ইতিমধ্যে মেডিকেল কলেজে ২০১৪-২০১৫ সেশনের ভর্তির জন্য প্রজ্ঞাপন জারী করা হয়েছে। এতে আমরা রাঙ্গামাটির ছাত্র সমাজ খুবই আনন্দিত এবং আপনার কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। এধরনের মহতি উদ্যোগ পার্বত্য চট্টগ্রামে শিক্ষিত জাতি গঠনে অগ্রনী ভুমিকা পালন করবে। পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষ উন্নত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্ছিত। পার্বত্য এলাকা অনেক বেশী দূর্গম হওয়া এবং উন্নত চিকিৎসার সুযোগ না থাকার কারনে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম নয়তো ঢাকায় যেতে হয় যার ফলে পথের মধ্যে অনেক রোগীর মৃত্যু হয়। আমরা মনে করি, এই মেডিকেল কলেজ থেকে যেমন অনেক চিকিৎসক তৈরী হবে তেমনি পার্বত্য চট্টগ্রামের চিকিৎসা ব্যবস্থায় বিপ্লব ঘটাবে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখার জন্য পার্বত্য এলাকার ছাত্র-ছাত্রীদের দেশের বিভিন্ন জায়গায় যেতে হয়। এই এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন পার্বত্য এলাকায় বসবাসকারী সকল পাহাড়ী বাঙ্গালীর জন্য উন্নত শিক্ষার দ্বার উন্মোচিত হবে। দেশের কোন একটি অংশের মানুষকে শিক্ষা এবং চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত করে একটি দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন কোনভাবেই সম্ভব নয়। আপনি আমাদের অভিবাবক দেশের মঙ্গল জনক কিছু করার জন্য আপনিই আমাদের শেষ ভরসা। আমরা পার্বত্য এলাকার সচেতন ছাত্র সমাজ আপনার সাথে আছি এবং মেডিকেল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের ক্ষেত্রে যদি কোন ষড়যন্ত্র হয় তাহলে আমরা ছাত্র সমাজ পার্বত্যবাসীকে সাথে নিয়ে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করবো।

অতএব, আপনার নিকট রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার সকল ছাত্র সমাজের পক্ষ থেকে এমন উদ্যোগকে স্বাগত ও ধন্যবাদ জানিয়ে রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের কাজ অতি দ্রুততম সময়ে শেষ করা ও ২০১৪-১৫ সেশনে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সোনার বাংলাদেশ বিনির্মানের আকুল আবেদন জানাচ্ছি।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

মহালছড়িতে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মনাটেক গ্রামে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুর আড়াইটায় মনাটেক …

Leave a Reply