নীড় পাতা » ব্রেকিং » পৌষে পিঠের মৌতাত

পৌষে পিঠের মৌতাত

pitha-01

সরুচাকলি

উপকরণ: ১/২ কাপ চাল, ১ কাপ কলাই ডাল, সামান্য মরিচ গুঁড়ো, আদা রস, পরিমাণ মতো নুন, সাদা তেল।

পদ্ধতি: চাল ও ডাল আলাদা পাত্রে দু’ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। জল ছেঁকে এক সঙ্গে মিক্সিতে বেটে ঢাকা দিয়ে আরও দু’ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। এরপর ওই মিশ্রণে আদার রস, নুন, মরিচ গুঁড়ো, এক চিমটে খাবার সোডা দিয়ে ভাল করে ফেটিয়ে আরও আধঘণ্টা রেখে দিতে হবে। নন-স্টিক প্যানে সাদা তেল ছিটিয়ে একে-একে ধোসার মতো করে এপিঠ-ওপিঠ ভেজে তুলে রাখতে হবে। ঝোলা গুড়ে ডুবিয়ে সরু চাকলি—আহা!

পাটিসাপটা

উপকরণ: ১ কাপ আতপ চাল গুঁড়ো, ১/২ কাপ ময়দা, সুজি ২ চামচ, ১ কাপ দুধ, খেজুর গুড় ১ কাপ, নুন এক চিমটে। পুরের জন্য: ১ কাপ দুধ, ১ কাপ খোয়া ক্ষীর, ১টা ছোট্ট দারচিনি গুঁড়ো, জাফরান দুধে ভেজানো, নারকেল কোরার বদলে ড্রাই ফ্রুট কুচি ও কনডেন্সড মিল্ক আধ কাপ।

পদ্ধতি: পুরের সব উপকরণ মিশিয়ে এক ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। মিশ্রণটি যেন গাঢ় হয়। তলা ভারী পাত্রে মিশ্রণটি ঢিমে আঁচে নাড়তে হবে যতক্ষণ না পুরটা বেশ টেনে আসে। এবার বাকি উপকরণগুলি দিয়ে একটা ব্যাটার বানান। সরুচাকলির মতো এক পিঠ ভেজে ক্ষীরের পুর দিয়ে মুড়ে নিন।pitha-02

পাকনা পিঠে

উপকরণ: পাকা কলা ১টা, চাল গুঁড়ো ১ কাপ, ময়দা ১/৪ কাপ, চিনি স্বাদ অনুযায়ী, এক চিমটে বেকিং পাওডার, সামান্য নুন ও দরকার মতো সাদা তেল।

পদ্ধতি: শুকনো পাত্রে ময়দা, চাল গুঁড়ো, নুন ও বেকিং পাওডার ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার এর সঙ্গে কলা ভাল করে চটকে আন্দাজ মতো জল দিয়ে মেখে নিন। আধ ঘণ্টা ভিজে কাপড় মুড়ে রেখে দিতে হবে। কিছুক্ষণ পরে ওই মণ্ড থেকে ছোট ছোট করে লেচি কেটে তেল মাখানো বোর্ডে বা চাকিতে রেখে আঙুলের সাহায্যে চ্যাপ্টা পাঁপড়ের মতো আকার দিয়ে ছাঁকা তেলে ভেজে তুলে নিন। এই পিঠে গরম-গরম খেতেই বেশি ভাল লাগে। এ ছাড়া এই পিঠে ঠান্ডা হলে শক্ত হয়ে যেতে পারে।pitha-03

গোকুল পিঠে

উপকরণ: মণ্ড: ২ কাপ কুচনো খোয়া, ২ টেবিল চামচ চিনি, ১ চা চামচ এলাচ গুঁড়ো।

ব্যাটার: ১ কাপ ময়দা, ২ টেবিল চামচ সুজি, ২ টেবিল চামচ দই। ঘি। রস: ২ কাপ গুড়/ চিনি, জল।

পদ্ধতি: নন-স্টিক প্যানে খোয়া, চিনি ও এলাচ মিশিয়ে নেড়ে মণ্ড বানান। এবার হাতের তালুতে ঘি মেখে গোল গোল খোয়ার বল তৈরি করুন। দই, সুজি ও ময়দার মিশ্রণে (অনেকে মুগ ডাল বাটা ব্যবহার করেন) খোয়ার বল ডুবিয়ে ছাঁকা ঘি-তে কড়া করে ভেজে তুলুন। রসে ২০-২৫ মিনিট ডুবিয়ে তুলে নিলেই হয়ে গেল গোকুল পিঠে।

চিড়ের পিঠে

উপকরণ: ২ কাপ চিড়ে, ১ কাপ নারকেল কোরা, দু’কাপ গুড়, ১ কাপ ময়দা, ভাজার জন্য ভাল ঘি।

পদ্ধতি: নারকেলের সঙ্গে গুড় মেখে নন-স্টিক প্যানে নেড়ে নিতে হবে। চিনি বা গুড়ের সিরাপ করে ঠান্ডা করে রাখুন এক পাশে। এবার চিড়ে গরম জলে ধুয়ে মেখে নিতে হবে। মাখা মণ্ড থেকে গোলা নিয়ে নারকেলের পুর ভরুন । ছাঁকা ঘিয়ে ভেজে চিনির রসে ফেলতে হবে।

মুগ পাকনা পিঠে

উপকরণ: চাল গুঁড়ো ১ কাপ, মুগ ডাল ভেজানো ১ কাপ, ময়দা ১ কাপ, সবুজ এলাচ গুঁড়ো, চিনি ১ কাপ, চিনির রস, একচিমটে নুন স্বাদ মতো, সাদা তেল।

পদ্ধতি: ভেজানো ডাল নন-স্টিক কড়াইয়ে তিন কাপ জলে সেদ্ধ করে নিতে হবে। ডাল সুসিদ্ধ না হলে আরও একটু জল দিয়ে সুসিদ্ধ ও নরম করে নিতে হবে। শুকিয়ে এলে ময়দা ও চাল গুঁড়ো দিয়ে নাড়তে হবে। মণ্ডে একচিমটে নুন ও এলাচ গুঁড়ো মিশিয়ে কড়াই নামিয়ে ঠান্ডা করে নিন। এ বার ওই মণ্ড থেকে ছোট লেচি কেটে ছোট পাশবালিশের মতো করে গড়ে ছাঁকা তেলে কড়া করে ভেজে নিন। চিনির রসে দু’ঘণ্টা রেখে ঠান্ডা হলে পরিবেশন করুন।

দুধপুলি

উপকরণ: ১ কাপ নারকেল কোরা, গুড় ১ কাপ, আমন্ড কুচো ২ টেবিল চামচ, আতপ চাল গুঁড়ো ১ কাপ, জল ১ কাপ, আধ চা চামচ ছোট এলাচ গুঁড়ো, নুন, ঘন দুধ।

পদ্ধতি: ফোটানো ঘন দুধ ঠান্ডা করে তাতে পাটালি মিশিয়ে নিন। অন্য এক পাত্রে নারকেল কোরা, বাদাম কুচো ও গুড় দিয়ে মাঝারি আঁচে নেড়ে শুকনো করে নিতে হবে।

গরম জলে আতপ চাল, এক চিমটে নুন দিয়ে মসৃণ করে মাখতে হবে। ওই মিশ্রণ থেকে লেচি কেটে লুচির মতো বেলে, ভেতরে নারকেলমাখা পুর ভরে অর্ধচন্দ্রাকারে পুলির পিঠের দুই প্রান্ত আটকে নিতে হবে। পুলি ভাপিয়ে সেদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ করা সেই পুলিকে দুধে ফেলে দিলেই তৈরি হয়ে গেল দুধপুলি।

( কৃতজ্ঞতা : আনন্দবাজার)

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জুরাছড়িতে গুলিতে নিহত কার্বারির ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলায় স্থানীয় এক কার্বারিকে (গ্রামপ্রধান) গুলি করে হত্যা করেছে অজ্ঞাত বন্দুকধারী সন্ত্রাসীরা। রোববার …

Leave a Reply