নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » পিকেটারদের হামলায় প্রাণ বাঁচাতে গিয়ে ট্রাকে পিষ্ট স্কুল ছাত্র

পিকেটারদের হামলায় প্রাণ বাঁচাতে গিয়ে ট্রাকে পিষ্ট স্কুল ছাত্র

খাগড়াছড়ি-দীঘিনালা সড়কের ৩ মাইল নামক এলাকায় ট্রাকের চাপায় এক স্কুল ছাত্র নিহত এবং অপর এক ছাত্র আহত হয়েছে। সকাল ৯ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ট্রাক চালককে আটক করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই এলাকায় অবরোধ সমর্থকরা চলন্ত ট্রাকে পাহাড় থেকে ইটপাটকেল ছুড়ে। তখন ট্রাকটি থামার চেষ্টা করলে ওপরে থাকা স্কুল শিক্ষার্থীরা নামার সময় দুই ছাত্র ট্রাকের চাকার নিচে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই নিহত হয় আদর্শ হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র পনেশ্বর ত্রিপুরা। আহত হয় একই স্কুলের তরুন ত্রিপুরা। তাকে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পিকেটার ও ট্রাকটি পালিয়ে গেছে। ঘটনার পর বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা ওই এলাকায় গেছেন। এদিকে নিহতের লাশ খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। খাগড়াছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামছুদ্দিন ভূইঁয়া জানান, ‘এই ঘটনায় নিহত পনেশ্বর ত্রিপুরার বাবা মজিত ত্রিপুরা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায়পুলিশের হাতে আটক ট্রাক চালক এনামুল হকসহ ২০/২৫ জন অজ্ঞাত পিকেটারকে আসামী করা হয়েছে।

৮টি সংগঠনের কনভেনিং কমিটির ডাকা অবরোধের কারণে খাগড়াছড়ির সাথে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ ছিল। চলেনি অভ্যন্তরিণ সড়কে যান চলাচল। অবরোধের সমর্থনে সংগঠনের নেতাকর্মীদের কয়েকটি জায়গায় চোরাগুপ্তা পিকেটিং করার খবর পাওয়া গেছে। অবরোধকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়। হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী নিরুপা চাকমা ও সদস্য দ্বিতীয়া চাকমাকে মুক্তি না দেয়ায় খাগড়াছড়িতে আধাবেলা সড়ক অবরোধের ডাক দেয়া হয়। এদিকে অবরোধ শেষে ৮ সংগঠনের পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে ৭ জনকে আটক করা হয়েছে বলে দাবী করা হয়েছে। কনভেনিং কমিটির সদস্য থুইক্যচিং মারমার পাঠানো এক বিবৃতিতে বলা হয়
উল্লেখ্য, ফিলিস্তিন সংহতি দিবস ও ৭১’র গণধর্ষণের দায়ে পাকিস্তানকে ক্ষমা চাওয়ার দাবীতে ৮ সংগঠনের কনভেনিং কমিটি সদর উপজেলা এলাকায় থেকে মিছিল বের করার চেষ্টা করে। তবে অনুমতি না থাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এসময় নিরুপা চাকমা ও দ্বিতীয় চাকমা নামে দুই নারী নেত্রীকে আটক করা হয়। অবরোধ চলাকালীন বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ৭ জনকে সেনাবাহিনী আটক করেছে বলে জানানো হয়। আটককৃতরা হলেন দীপঙ্কর ত্রিপুরা, প্রদীপ ত্রিপুরা, বট্ট ত্রিপুরা, সুরেশ চাকমা ও নয়ন চাকমা, রুপেন চাকমা এবং অন্তর চাকমা। আটককৃতরা ছাত্র বলে সংগঠনটির পক্ষ থেকে দাবী করা হয়। বিবৃতিতে অবিলম্বে আটক হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা ও সদস্য দ্বিতীয়া চাকমার নিঃশর্ত মুক্তিসহ ৪টি দাবী তুলে ধরা হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধীতার প্রতিবাদ রাঙামাটিতে

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মাণে বিরোধীতার নামে ‘উগ্রমৌলবাদ ও ধর্মান্ধগোষ্ঠীর জনমনে বিভ্রান্তির …

Leave a Reply