নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » ‘পাহাড়ি-বাঙ্গালী সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে’

‘পাহাড়ি-বাঙ্গালী সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে’

11.09খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলাধীন ২১ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি যামিনীপাড়া জোন সদরে বিশেষ নিরাপত্তা সম্মেলন ও মতবিনিময় সভা বৃহস্পতিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়। বিজিবি জোন সদরে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন ২১ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন-বিজিবি জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল মো: সিদ্দিকুল রহমান।

সভাপতির বক্তব্যে যামিনীপাড়ায় জোন অধিনায়ক লে: কর্ণেল মো: সিদ্দিকুল রহমান বলেন, এলাকায় যদি শান্তি বিরাজ করে, এখানকার মানুষ যদি সুখে থাকে, সমাজ থেকে যদি দারিদ্রতা দূর হয় তাহলেই আমরা বহুদূর এগিয়ে যাব। সেই লক্ষ্যে এলাকায় মিলে মিশে বসবাস করে শান্তি-সম্প্রীতি ও উন্নয়নের মূলমন্ত্রে পাহাড়ি-বাঙ্গালিসহ সকলকে এক যোগে কাজ করতে হবে। সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার বিকল্প নেই।

এ সময় তিনি আরো বলেন, বিজিবি নিরলসভাবে সম্প্রীতি বজায় রাখতে এখনো কাজ করে যাচ্ছে। তাইন্দংসহ জোনের নিয়ন্ত্রিত এলাকায় শান্তি স্থাপনে পাহাড়ী-বাঙ্গালী সকল সম্প্রদায়ের সর্বাত্বক সহযোগিতা প্রত্যাশা করে তিনি বলেন, এখানকার শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তনের লক্ষ্যে বিজিবি নিজেদের অর্থায়নে স্কুল প্রতিষ্ঠা করেছে আর এর সুফল ভোগ করছে স্থানীয় পাহাড়ী-বাঙ্গালী জনগোষ্ঠি।

এসময় তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের শারদীয় দূর্গাপুজাকে সামনে রেখে এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, সকলে মিলেমিশে যেন উৎসব পালন করতে পারে বিজিবি সেলক্ষ্যে এখন থেকেই তৎপর রয়েছে। এজন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

নিরাপত্তা সম্মেলন ও মতবিনিময় সভায় জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর মো: শাহ আলম, তাইন্দং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: তাজুল ইসলাম, বড়নাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আলী আকবর ও পাহাড়ী নেতা সমীরণ চাকমা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

নিরাপত্তা সম্মেলন ও মতবিনিময় সভায় জোন নিয়ন্ত্রিত তাইন্দং, তবলছড়ি ও বড়নাল ইউনিয়নের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, পুলিশ কর্মকর্তা, সাংবাদিক, হেডম্যান-কার্বারী ও ব্যাবসায়ী প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

সৌরশক্তি ব্যবহার করে সেচ সুবিধার আওতায় কৃষক

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার শুকনো মৌসুমে চাষযোগ্য জমির প্রায় অর্ধেকের মতো খালি পড়ে থাকে সেচের অভাবে। …

Leave a Reply