নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » পার্বত্য প্রতিমন্ত্রীকে বরণে বান্দরবানে ১৮০ তোড়ন

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রীকে বরণে বান্দরবানে ১৮০ তোড়ন

Bir-Cover-Photo-1‘অসাম্প্রদায়িক বীর’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পর প্রথম বান্দরবান আগমনকে স্মরনীয় করে রাখতে এবং তাকে বরণে শহরে ১৮০ টি তোড়ন তৈরি করা হচ্ছে। ব্যাপক আয়োজন আর সাজসজ্জা চলছে জনসভাস্থল স্থানীয় রাজারমাঠসহ বান্দরবান শহর জুড়ে।বুধবার বিকালে বান্দরবানে স্থানীয় রাজারমাঠে জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে গন-সংবর্ধণার আয়োজন করা হয়েছে।

চট্টগ্রামের কালুরঘাট সেতু থেকে বান্দরবান সংবর্ধনাস্থল রাজারমাঠ পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ১৮০ তোড়ন নির্মাণ করা হয়েছে। এছাড়াও ব্যানার ফেস্টুনে ছেড়ে গেছে জেলা শহরসহ আশপাশের এলাকাগুলো।

এদিকে অনেক ত্যাগতিতিক্ষা এবং দীর্ঘ ৩৭ বছরের প্রতিক্ষার পর বান্দরবানবাসী একজন মন্ত্রী পেয়ে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বান্দরবানের কৃতি সন্তান বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির কাছে তাদের প্রত্যাশাও বহু।

শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য, ক্ষুদ্র-কুটির শিল্প, পর্যটন, যোগাযোগ, অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ পার্বত্য চট্টগ্রামের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখবেন। ঘটাবেন বান্দরবানসহ তিন পার্বত্য জেলার এগারটি পাহাড়ী জনগোষ্ঠীসহ বাঙ্গালী সম্প্রদায়ের আশা-আকাঙ্খার প্রতিফলন। কথাগুলো বলেছেন পাহাড়ের উন্নয়নে অবদান রাখা শিক্ষক, ব্যবসায়ী, মানবাধিকার নেত্রী, সুধিসমাজের প্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গরা।
বাংলাদেশ মানবাধিক কমিশন বান্দরবান জেলা সভানেত্রী ডনাই প্রু নেলী বলেছেন, দীর্ঘ তেইশ বছরের সংসদ সদস্যের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে পাহাড়ের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর। তাঁত বস্ত্র ও হস্তশিল্প সম্প্রসারণের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পে যুক্ত নারী উদ্যোক্তাদের স্বাবলম্বী করে তোলার উদ্যোগ নিবেন। পার্বত্যাঞ্চলে নারী নির্যাতন বন্ধে এবং মানবাধিকার সুরক্ষায় পদক্ষেপ নেবেন নবনিযুক্ত মন্ত্রী এমন প্রত্যাশাই করি আমরা।

বান্দরবান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাজট্রিজের সহসভাপতি লক্ষী পদ দাশ বলেছেন, ৩৭ বছরের দীর্ঘপথ পাড়ি দেয়ার পর প্রতিক্ষিত মন্ত্রী পেয়েছে বান্দরবানবাসী। তাই পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের কাছে মানুষের প্রত্যাশাও বেশি। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সংস্কৃতি, ঐতিহ্য, ক্ষুদ্র-কুটির শিল্প এবং ব্যাপক সম্ভাবনাময় পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে যুগপোযুগী পদক্ষেন নিবেন এবং বান্দরবানবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্নগুলো পূরণে ভূমিকা রাখবেন এটাই আমাদের প্রত্যাশা।
বান্দরবান সরকারী কলেজের প্রাত্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর থানজামা লুসাই বলেছেন, পাহাড়ে আলো ছড়াতে পার্বত্যবাসীর কল্যানে বান্দরবানে একটি মেডিক্যাল কলেজ এবং একটি বিশ্ব বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণের প্রচেষ্ঠা চালাবেন। শিক্ষায় অনগ্রসর পাহাড়ী জনগোষ্ঠীগুলোর শিক্ষার উন্নয়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন। প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বান্দরবানের সামগ্রীক উন্নয়নে ভুমিকা রাখবেন এটাই প্রত্যাশা। জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ ইসলাম বেবী বলেছেন, বীর বাহাদুর’কে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী করে বান্দরবানবাসীর দীর্ঘ ৩৭ বছরের প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়েছে প্রধানমন্ত্রী। সেজন্য বঙ্গবন্ধু কন্যার প্রতি বান্দরবানবাসী কৃতজ্ঞ।
প্রসঙ্গত, ১৯৭৭ সালে জিয়াউর রহমান সরকারের আমলে বান্দরবানের বাসিন্দা অংশৈ প্রু চৌধুরী খাদ্য প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। দীর্ঘ ৩৭ বছর পর পঞ্চম বারেরমত নির্বাচিত বান্দরবানের কৃতি সন্তান সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈসিং পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেলেন।Bandarban-Toron-PiC

জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মো: ইসলাম বেবী জানান, পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের আগমনকে ঘিরে বান্দরবানে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। কালুরঘাট থেকে বান্দরবান রাজারমাঠ পর্যন্ত বিভিন্নস্থানে আওয়ামীলীসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ১৮০টি তোড়ন তৈরি করা হয়েছে। দুপুরে সাতকানিয়ার কেরানীহাট থেকে মটর সাইকেল-গাড়ী শোভাযাত্রার মাধ্যমে মন্ত্রী’কে বরণ করে নিয়ে আসা হবে। মন্ত্রীর সঙ্গে চট্টগ্রামের পটিয়া, সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যসহ বেশ কয়েকজন এমপি আসবেন। বিকালে রাজারমাঠে সংবর্ধণা ও জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর’সহ সফর সঙ্গীরা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লামায় সহায়তা পেল কর্মহীন মানুষ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী অসহায় ও দুস্থ মানুষের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনী মানবিক সহায়তা করে চলেছে। …

Leave a Reply