নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » পার্বত্য চুক্তি পূর্ণ বাস্তবায়নের দাবি

পার্বত্য চুক্তি পূর্ণ বাস্তবায়নের দাবি

mahalchariখাগড়াছড়ির মহালছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রামে আন্দোলনরত আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল জনসংহতি সমিতির চেয়ারম্যান ও তৎকালীন সশস্ত্র শান্তিবাহিনীর প্রতিষ্ঠাতা গেরিলা নেতা প্রয়াত মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা’র ৩২তম শোক দিবস পালন করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি(এম এন) মহালছড়ি থানা শাখা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টায় প্রয়াত এম এন লারমা’র বেদীতে জেএসএসের কেন্দ্রীয় কমিটিসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ পুষ্পস্তবক অর্পণের পর পাবর্ত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মহালছড়ি থানা শাখার দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। শোক সভায় জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) মহালছড়ি থানা শাখার সভাপতি প্রিয় কুমার চাকমার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক তাতিন্দ্র লাল চাকমা (পেলে)। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জনসংহতি সমিতি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আরাধ্য পাল চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা শাখার যুব ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক নীল রঞ্জন চাকমা, সমর বিকাশ চাকমাসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। শোক প্রস্তাব পাঠ করেন জনসংহতি সমিতি খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আরাধ্যপাল চাকমা। প্রয়াত এম এন লারমার স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

শোক সভায় বক্তারা বলেন, সরকার মুখরোচক শান্তনার বাণী শুনিয়ে পার্বত্যচুক্তি যথাযথ বাস্তবায়নে গড়িমসি করছে। পার্বত্যচুক্তির যত দ্রুত পূর্ণ বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বলেন, অচিরেই পার্বত্যচুক্তি পূর্ণ বাস্তবায়ন না হলে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

উল্লেখ্য, পার্বত্য চট্টগ্রামে তৎকালীন সশস্ত্র গ্রুপ শান্তিবাহিনীতে আভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে ১৯৮৩ সালের ১০ই নভেম্বর ভোর রাতে নিজ কর্মী বাহিনী একাংশের হাতে তাঁর ৮ জন সহযোদ্ধাসহ নিহত হন পাহাড়িদের অন্যতম নেতা মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply