‘পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্তু লারমা একজন দানবে পরিণত হয়েছেন’

UPDF-flag-coverইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর রাঙামাটি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক উজ্জ্বল স্মৃতি চাকমা সংবাদ মাধ্যমে প্রদত্ত এক বিবৃতিতে রবিবার সকালে রাঙামাটির লংগদু উপজেলার ভাইবোনছড়া গ্রামে জেএসএস(সন্তু গ্রুপ) কর্তৃক তিন ইউপিডিএফ সদস্যকে ব্রাশ ফায়ারে হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্তু লারমা একজন দানবে পরিণত হয়েছেন। পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নে অসহযোগ আন্দোলনের কথা বলে তিনি জনগণকে বিভ্রান্ত করে আবারো হত্যাকান্ডে মেতে উঠেছেন।
বিবৃতিতে তিনি ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, রবিবার সকালে ইউপিডিএফ সদস্যরা লংগদু উপজেলার ভাইবোনছড়া গ্রামে যুদ্ধমনি চাকমার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। সকাল আনুমানিক সাড়ে ৬টার দিকে জেএসএস সন্তু গ্রুপের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী সেখানে হানা দিয়ে অতর্কিতে ব্রাশ ফায়ার করে তিন ইউপিডিএফ সদস্যকে হত্যা করে।
বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সন্তু গ্রুপের সন্ত্রাসী কর্তৃক যারা হত্যার শিকার হয়েছেন তারা হলেন- বাড়ির মালিক (ইউপিডিএফ সদস্য) যুদ্ধমনি চাকমা ওরফে অমিত(৩২), পিতা তুলমনি চাকমা, গ্রাম- ভাইবোন ছড়া, লংগদু, রূপময় চাকমা ওরফে সুজয় (৩০), পিতা- রস্তম চাকমা, গ্রাম- বড় কাত্তোলি, লংগদু ও সুমন চাকমা(২৫), পিতা- নারায়ন চাকমা, গ্রাাম- ছোট করল্যাছড়ি, নান্যাচর।
বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, ক্ষমতাসীন সরকার ইউপিডিএফের ওপর দমন পীড়ন জারি রেখে সন্তু লারমাকে দিয়ে হত্যা ও সন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে। সরকারের মদদদেই সন্তু লারমা এসব সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিচালনা করছেন। যার কারণে খুনী সন্তু লারমাকে এখনো জামাই আদর দিয়ে আঞ্চলিক পরিষদের গদিতে বসিয়ে রাখা হয়েছে।
বিবৃতিতে তিনি অবিলম্বে ইউপিডিএফের তিন সদস্যকে হত্যার সাথে জড়িত সন্তু লারমার সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার, আঞ্চলিক পরিষদ থেকে অপসারণ করে খুনী সন্তু লারমার বিচার ও সন্তু গ্রুপের সন্ত্রাসীদের সরকারী মদদদান বন্ধ করার দাবি জানান।
রাঙামাটি জেলা ইউনিট সংগঠক ইউপিডিএফ সচল চাকমা সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই বিবৃতিতে গণমাধ্যমে পাঠানো হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কারাতে ফেডারেশনের ব্ল্যাক বেল্ট প্রাপ্তদের সংবর্ধনা

বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন হতে ২০২১ সালে ব্ল্যাক বেল্ট বিজয়ী রাঙামাটির কারাতে খেলোয়াড়দের সংবধর্না দিয়েছে রাঙামাটি …

Leave a Reply

%d bloggers like this: