নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » পানির স্তর কমছে, বিদ্যুৎ উৎপাদন শংকায়

পানির স্তর কমছে, বিদ্যুৎ উৎপাদন শংকায়

kaptai-hydro-projectকাপ্তাই হ্রদে পর্যাপ্ত পানির অভাবে বন্ধ হতে বসেছে কাপ্তাই পানি বিদ্যুতের ৫টি ইউনিটের মধ্যে ৪টি ইউনিট। পানির অভাবে ৪ টি ইউনিট অনিয়মিতভাবে চললেও একটি ইউনিট দিয়ে চব্বিশ ঘন্টা ধারাবাহিকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন করলেও পানি কমতে থাকায় এ ইউনিটও বন্ধ হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ। পানি কম থাকায় উপজেলার সাথে নৌ যোগাযোগ ব্যহত হচ্ছে। নৌ যোগাযোগ স্বাভাবিক না থাকায় দুর্ভোগে পড়েছে জেলার কয়েক লাখ মানুষ। চলতি সপ্তাহের মধ্যে বড় ধরনের বৃষ্টিপাত না হলে হ্রদের আরো দুরাবস্থা হবে বলে মনে করছেন সংশ্লি¬ষ্টরা।

সোমবার সকালে কাপ্তাই হ্রদের পানির স্তর ছিল ৭৮.৪৬ এমএসএল (মিনস সি লেভেল)। যা রুল কার্ভের চেয়ে হ্রদে পানির পরিমাণ ৪.৪৬ এমএসএল কম। আর বৃষ্টিপাত না থাকায় হ্রদের পানির স্তর দিন দিন কমছে।

কাপ্তাই বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোঃ আব্দুর রহমান জানান, এখন দৈনিক গড়ে ১১৬ থেকে ১১৭ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে। তিনি বলেন, হ্রদে এখন যে পরিমাণ পানি আছে এতে একটা ইউনিট বা মেশিন চালালে ৫৫ দিন চলবে আর ২টা মেশিন চালাতে গেলে ২৬ দিন পর্যন্ত চলবে। তাই আমরা সবগুলো ইউনিট একসাথে সচল না রেখে পৃথকভাবে তা চালাচ্ছি এবং তা নির্ভর করছে পানির অবস্থার উপর।

তিনি জানান, পানির স্তর সর্বনিু ৬৮ এমএসএল (মিনস সি লেভেল) পর্যন্ত থাকলে বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব। এর নিচে পানি কমে আসলে এবং বৃষ্টি না হলে বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ হবার আশঙ্কা থেকে যায়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জনপ্রিয় হচ্ছে ‘তৈলাফাং’ ঝর্ণা

করোনার প্রভাবে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল খাগড়াছড়ির পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র। তবে টানা বন্ধের পর এখন খুলেছে …

Leave a Reply