নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » পানছড়ি জুড়ে ‘প্রেস বিজ্ঞপ্তি’র রাজনীতি!

পানছড়ি জুড়ে ‘প্রেস বিজ্ঞপ্তি’র রাজনীতি!

ফাইল ছবি

‘প্রেস বিজ্ঞপ্তি’ আর ‘প্রেস বিজ্ঞপ্তি’। গত কয়েকদিন ধরে যেনো মর্জিমাফিক রাজনীতির চিত্র দেখছে গোটা জেলাবাসী। দেখে মনে হতে পারে মানুষের জন্য নয়, কাগজের জন্য রাজনীতি! যে বয়সে রাজনীতিতে হাতেখড়ি হয়, সেই বয়সেই কাগজ, পদ নিয়ে টানাটানি! খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন, কমিটি, পদপদবী নিয়ে চলছে নানান অভিযোগ ও পদক্ষেপ গ্রহণ।

জেলা ছাত্রলীগের দেয়া কমিটিতে পদ পেয়ে বসে আছেন অথচ পদবি প্রাপ্তির খবর জানেন না নেতা! এমন ঘটনাও ঘটেছে। অনিয়ম, দুর্নীতি, বিএনপি, জামায়াতের ‘এজেন্ডা বাস্তবায়নকারী’ আখ্যায়িত করে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি টিকো চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজকে জেলাতেই ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা করে বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা। মেয়াদ উত্তীর্ণ জেলা কমিটি বিলুপ্তির দাবি তুলেছে পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগও।

নবগঠিত পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের আংশিক কমিটির দুই সহ-সভাপতির পর, বুধবার পদত্যাগ করেছেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আংশিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক তমল বিকাশ ত্রিপুরা! উপজেলা ছাত্রলীগের দুই সহ-সভাপতি রুবেল ত্রিপুরা ও সকন চাকমার মতো তিনিও পদ প্রাপ্তি বিষয়ে অবগত ছিলেন না! কমিটি গঠন ও তার সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব প্রাপ্তি সম্পর্কে কিছুই জানেন না বিধেয় স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছেন তিনি। গত চারদিন ধরেই ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ড ঘিরে পুরো খাগড়াছড়ি জেলায় চলছে তুলকালাম কাণ্ড।

গত রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি টিকো চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন ফিরোজ পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ ও পানছড়ি সরকারি ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত করেন। অন্য এক বিজ্ঞপ্তিতে পানছড়ি সরকারি ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ শাখাকে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক ইউনিট হিসেবে ঘোষণা দেন। পত্রে মানিক, রুবেল, মামুন ও কমলাশীষ কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়া এবং সম্মেলন করতে না পারার ব্যর্থতাকে তুলে ধরেন তারা। পূর্বের কমিটি বিলুপ্ত ও নবগঠিত আংশিক কমিটিকে সময় উল্লেখ করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের লিখিত নির্দেশনা দেয় জেলা ছাত্রলীগ। এর আগে পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন করার জন্য সর্বশেষ ২০১৯ সালের ২০ নভেম্বর নির্ধারণ করে জেলা ছাত্রলীগ।

এসব কর্মকাণ্ডকে ‘দুরভিসন্ধিযুক্ত’ ষড়যন্ত্রমূলক আখ্যায়িত করে শ্রীকান্ত দেব মানিক-জহিরুল আমিন রুবেল নেতৃত্বাধীন পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ। মামুন আহাম্মেদ-কমলাশীষ চক্রবতী নেতৃত্বাধীন পানছড়ি কলেজ ছাত্রলীগ ও বিভিন্ন ইউনিয়ন ছাত্রলীগ প্রতিবাদ, বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ করে। এদিন সোমবার বিকালে (৩রা ফেব্রুয়ারি) বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের কুশপুতুল পুড়িয়ে তাদেরকে পানছড়ি উপজেলায় ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা করে বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা।

এ ঘটনার রেশ না কাটতেই সোমবার রাতেই, পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের আংশিক কমিটি দেয় জেলা ছাত্রলীগ। পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে জাহাঙ্গীর আলমকে সভাপতি ও নাজমুল হাসানকে সাধারণ সম্পাদক পদ করা হয়। সহ-সভাপতি পদে রুবেল ত্রিপুরা, সকন চাকমা ও উদয় মারমা সাংগঠনিক পদ পান। অপরদিকে পানছড়ি সরকারি কলেজ শাখারও নতুন কমিটি ঘোষণা দেয় জেলা ছাত্রলীগ। এতে সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনকে সভাপতি, তমল বিকাশ ত্রিপুরারকে সাধারণ সম্পাদক ও রিবেক চাকমাকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়।

কিন্তু পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন সমন্বয়কের দায়িত্বে থাকা জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাপ্পী চৌধুরী এসবের কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন। তখন তিনি বলেছেন, শুধু কী পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে আর কোনো কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়নি? আমি পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সমন্বয়কের দায়িত্বে আছি । আমার সাথে বসে এমন কোনো জরুরি সিদ্ধান্ত হয়নি যে পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত। তিনি জেলা সভাপতি টিকো চাকমা ও জহির উদ্দিন ফিরোজের এমন কাণ্ডের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

মানিক-রুবেল নেতৃত্বাধীন পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের অংশটি টিকো-ফিরোজের নেয়া পদক্ষেপগুলোকে অনিয়মতান্ত্রিক, উদ্দেশ্য প্রণোদিত দাবি করছে। বিএনপি, জামায়াত পরিবারের সন্তান, ছাত্রদল নেতাকে ছাত্রলীগ সভাপতি বানানো, দলীয় কর্মসূচিতে কখনোই দেখা যায়নি এমন ব্যক্তিদের পদ-পদবী দেওয়া হয়েছে- এমন অভিযোগ তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও সমালোচনা চলছে।

এতসবের মাঝে সোমবার রাতেই আরেকটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয় পানছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ। তাতে ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তি ও গঠন সম্পর্কে মূলসংগঠনের নেতৃত্ব কিছুই অবগত নন উল্লেখ করা হয়। একই সাথে মানিক-রুবেল নেতৃত্বাধীন ছাত্রলীগের অভিযোগের সাথে ঐক্যমত প্রকাশ ও জেলা ছাত্রলীগের দেয়া কমিটি প্রত্যাখান করে পানছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ। এছাড়া সম্মেলনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সকল ইউনিটের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের আশাবাদ ব্যক্ত করেন তারা।

এ ঘটনার পরদিন মঙ্গলবার ( ৪ ফেব্রুযারি) দিন শেষ হতে না হতেই পদত্যাগ করেন জেলা ছাত্রলীগের গড়ে দেয়া কমিটির দুই সহ-সভাপতি। তারাও কমিটি গঠন ও পদ প্রাপ্তি সম্পর্কে অবগত নন বলে পদত্যাগ পত্র উল্লেখ করেন। এছাড়া আংশিক কমিটিতে সভাপতির দায়িত্ব যাকে দেয়া হয়েছে, তিনি ‘ছাত্রদল নেতা’ ছিলেন অবহিত হওয়ার পর তার সাথে একসঙ্গে ছাত্রলীগ করতে পারেন না- বলেও বলেন এই দুই পদত্যাগীকারী নেতা।

কাগজের রাজনীতির এখানেই শেষ নয়। আগের ঘটনার রেশ শেষ হতে না হতেই, পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সকল কার্যক্রম স্থগিত করে মঙ্গলবার রাতেই আরেকটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয় জেলা ছাত্রলীগ। পরদিন বুধবার সকালে পদত্যাগ করেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের একবছর মেয়াদি আংশিক কমিটিতে সাধারণ সম্পাদকের পদ পাওয়া তমল বিকাশ ত্রিপুরা।

পানছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের মানিক-রুবেল কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জালাল হোসেন বলেন, জেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দকে আমরা পানছড়ি উপজেলায় আসার আমন্ত্রণ জানাই। ছাত্রলীগ নিয়মতান্ত্রিক ও গণতান্ত্রিক রাজনীতি করে। একইসাথে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা ও সম্মেলনে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচিত নতুন নেতৃত্বের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তরেরও আহ্বান জানান তিনি।

এসব প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পানছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিজয় কুমার দেব বলেন, ‘এটা তো ক্লাব কমিটি নয়। ছাত্রলীগ একটি ঐতিহ্যবাহী সংগঠন। এই সংগঠনের সভাপতি-সম্পাদকের ইচ্ছে মত কমিটি গঠন, বিলুপ্তি করার সুযোগ গঠনতন্ত্রের কোনো ধারায় আছে কিনা জানি না। পানছড়ি ছাত্রলীগ সুসংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ। সবার চাওয়া মতো গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সম্মেলনের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচন করা সম্ভব।’

উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন আংশিক কমিটিতে সভাপতির দায়িত্বপ্রাপ্ত জাহাঙ্গীর আলম তার নামে ওঠা অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, ‘তাদের দাবিকৃত নামের সাথে আমার নামের কোনো মিল নেই। আমি ২০১১ সালে উল্টাছড়ি ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটির সভাপতি ছিলাম। তাছাড়া ওই কমিটির আগে থেকেই আমি ছাত্রলীগের সাথে আছি। দলীয় কোন্দলের কারণে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলছে।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বান্দরবানে বিজিবি-মাদক চোরাকারবারী গোলাগুলিতে নিহত ১

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে মিয়ানমার সীমান্তে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিবি-মাদক চোরাকারবারীর গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় মাদক পাচারকারী চক্রের …

Leave a Reply