নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » পানছড়িতে অস্ত্র-গুলিসহ ৩ ইউপিডিএফ কর্মী আটক

পানছড়িতে অস্ত্র-গুলিসহ ৩ ইউপিডিএফ কর্মী আটক

updfখাগড়াছড়ি জেলার পানছড়িতে সেনাবাহিনী অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও গুলিসহ ইউপিডিএফ এর সংগঠকসহ ৩ জন দুর্বৃত্তকে আটক করেছে। শনিবার ভোর ৪টার দিকে পানছড়ি উপজেলার মরাটিলা প্রফুলরঞ্জন কার্বারী পাড়ায় এই অভিযান চালানো হয়। নিরাপত্তাবাহিনী ও পুলিশ সূত্র খবরটি নিশ্চিত করেছে।
নিরাপত্তাবাহিনী সূত্র জানিয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার ভোর ৪টার দিকে পানছড়ি-তবলছড়ি সড়কের মরাটিলা নামক এলাকায় সেনাবাহিনীর একটি টহলদল পুলিশকে সাথে নিয়ে অভিযান চালায়। তারা সন্দেহভাজন এলাকাটি কর্ডন করে ব্যাপক তল্লাসী করে অস্ত্রশস্ত্রসহ ৩জনকে আটক করে।
আটককৃতরা হলো- সুনীল বিকাশ ত্রিপুরা ওরফে কাতাং (৩৫), মহেন্দ্র ত্রিপুরা (২৫) ও সুরেন্দ্র ত্রিপুরা (২৮)। তাদের কাছ থেকে উদ্বার হওয়া অস্ত্রশস্ত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে ১টি একে-২২ বোরের রাইফেল, ১টি এসএলআর, ১টি দেশীয় তৈরী পিস্তল, একে-২২ রাইফেলের ৪২ রাউন্ড গুলি, ৫ রাউন্ড পিস্তলের গুলি, ৪টি এসএলআর’র গুলি, ২টি এলজির কার্তুজসহ চাঁদা আদায়ের রশিদ বই।
আইন শৃংখলাবাহিনীর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সুনীল বিকাশ ত্রিপুরা ঐ এলাকায় অবস্থান করে চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধমুলক তৎপরতায় নেতৃত্ব দিয়ে আসছিল। আটকের পর তারা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নিজেদেরকে ইউপিডিএফ এর কর্মী বলে দাবী করেছে।
সেনাবাহিনীর পানছড়ি সাব জোনের মেজর মেহেদী হাসান রাসেল অভিযানে নেতৃত্ব দেন বলে জানা যায়।
পানছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুস সামাদ মোড়ল ৩ সন্ত্রাসীকে আটক ও অস্ত্র উদ্ধারের খবর নিশ্চিত করে জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা শেষে আদালতে পাঠানো হবে।

এদিকে ইউপিডিএফ এর মুখপাত্র নিরন চাকমা আটককৃতদের মধ্যে সুনীল ত্রিপুরাকে ইউপিডিএফ‘র সংগঠক এবং অপর দু‘জনকে স্থানীয় বাসিন্দা বলে দাবী করেছেন। তিনি অভিযোগ করেন, তাদেরকে ঘুমন্ত অবস্থায় আটকের পর হাতে অস্ত্র ধরিয়ে দেয়া হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

জনপ্রিয় হচ্ছে ‘তৈলাফাং’ ঝর্ণা

করোনার প্রভাবে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল খাগড়াছড়ির পর্যটন ও বিনোদনকেন্দ্র। তবে টানা বন্ধের পর এখন খুলেছে …

Leave a Reply