নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » ‘পর্যায়ক্রমে পার্বত্য শান্তি চুক্তির পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়ন করা হবে’

‘পর্যায়ক্রমে পার্বত্য শান্তি চুক্তির পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়ন করা হবে’

BBN-hralth-02প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে বর্তমান সরকার অত্যন্ত আন্তরিক । পার্বত্যাঞ্চলের মানুষের কল্যানে পর্যায়ক্রমে পার্বত্য শান্তি চুক্তির পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়ন করা হবে। পাহাড়ের মানুষদের শিক্ষার উন্নয়নে মেডিক্যাল কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে।’

প্রধানমন্ত্রী সোমবার বান্দরবান ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট মিলনায়তন থেকে টেলিকনফারেন্সে এই কথা বলেন। সচিবালয়ে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যুক্ত হয়ে বান্দরবানে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের দিনব্যাপী কর্মসূচীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

“মশা-মাছি দূরে রাখি, রোগ বালাই মুক্ত থাকি” প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে বান্দরবানে জাতীয়ভাবে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের কর্মসূচী পালিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রণালয়ের সচিব এমএম নিয়াজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশনের মহাসচিব প্রফেসর ডা. এম ইকবাল আর্সেনাল, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি ডা. তুষারা ফার্নেদো, বান্দরবান ৬৯ সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নকিব আহমদ চৌধুরী, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈ হ্লা, জেলা প্রশাসক কেএম তারিকুল ইসলাম’সহ সরকারী প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, এনজিও সংস্থা’সহ সুধী সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। । bbn-health-01

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, পাহাড়ের দীর্ঘদিনের সমস্যা একদিনে এর সমাধান করা সম্ভব নয়। শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন একটি চলমান প্রক্রিয়া, ধীরে ধীরে পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়নে অগ্রসর হচ্ছে সরকার। চুক্তির সবগুলো ধারা বাস্তবায়নে কাজ করছে পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

ম্যালেরিয়া কমপ্লেক্স বান্দরবান জেলায় নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, চিকিৎসক সংকট সারাদেশেই রয়েছে, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে চিকিৎসক সংকট নিরসন প্রায় ছয় হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে। যানবাহন’সহ প্রযুক্তিগত সকল যন্ত্রও দেয়া হবে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে। স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে নতুন নতুন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

এদিকে বিশ্ব দিবস’ উপলক্ষে সকালে জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সামনে থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি’র নেতৃত্বে বর্নাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটে গিয়ে শেষ হয়। এছাড়াও সেখানে দিনব্যাপী বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা, পরামর্শ কেন্দ্র খোলা হয়। দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

থানচিতে অবৈধ ইটভাটা ভেঙেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

বান্দরবানের থানচিতে অনুমোদনহীন গড়ে ওঠা অবৈধ একটি ড্রাম চিমুনীর ইটের ভাটা ভেঙে দিয়েছে ভ্রম্যমাণ আদালত। …

Leave a Reply