নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » পদ হারালেন জেলা পরিষদের ‘প্রিয়’ প্রকৌশলী!

পদ হারালেন জেলা পরিষদের ‘প্রিয়’ প্রকৌশলী!

বান্দরবান এবং খাগড়াছড়ি দুটি জেলা থেকে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলীর অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা সোহরাব হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। শৃঙ্গলা ভঙ্গ ও অসদাচরণের অভিযোগে মঙ্গলবার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ থেকে এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহামেদ স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে মো: সোহারাব হোসেন বর্তমানে বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে নির্বাহী প্রকৌশলী (অতিরিক্ত দায়িত্ব) পালন করছেন। তার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর বিধি ৩(খ) অনুযায়ী অসদাচরণের দায়ে রুজুকৃত বিভাগীয় মামলায় আনীত অভিযোগ সমূহ সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে উক্ত বিধিমালার বিধি ১২(১) অনুযায়ী তাকে চাকরী থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

দুটি জ্যেষ্ঠ পদ ডিঙিয়ে সোহরাব হোসেনকে রহস্যজনকভাবে বান্দরবান এবং খাগড়াছড়ি জেলায় নির্বাহী প্রকৌশলীর অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করে আসছে। বর্তমানে তিনি খাগড়াছড়িতে ১০ বছর এবং বান্দরবানে ৮ বছর ধরে রয়েছেন। একজন উপ-সহকারী প্রকৌশলী হয়েও তিনি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের ক্ষমতা ব্যবহার করে অতিরিক্ত দায়িত্বের পদ ধরে রাখায় দুই জেলায় নির্বাহী প্রকৌশলী পদায়ন করা যাচ্ছে না বলে ঊর্ধ্বতন প্রকৌশলীরা অভিযোগ করেছেন। এদিকে গত ২১ মে কামাল হোসেন’কে নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে বান্দরবান এবং খাগড়াছড়ি দুটি জেলায় পরপর পদায়ন করা হয়। কিন্তু সোহরাব হোসেন এর নীলনকশায় তাঁকে যোগদান করতে দেননি পার্বত্য জেলা পরিষদ।

এদিকে বরখাস্তের বিষয়টি জানতে বুধবার সন্ধ্যায় সোহরাব হোসেনের ব্যবহৃত মুঠোফোনের দুটি নাম্বারে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে বান্দরবান জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের কর্মকর্তা খোরশেদ আলম জানান, নির্বাহী প্রকৌশলী সোহরাব হোসেনকে বরখাস্তের খবর পেয়েছি। কিন্তু কি কারণে তা বলতে পারি না।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রামগড়ে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি

খাগড়াছড়ির রামগড়ে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। চুরি, ডাকাতি, ধর্ষণসহ নানা অপকর্মে লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। …

Leave a Reply