নীড় পাতা » পাহাড়ের রাজনীতি » নেতা ফিরলেন শহরে

নেতা ফিরলেন শহরে

U-poc-01তার জীবনে এমন মুহুর্ত আগে কখনো আসেনি। শিক্ষাজীবন শেষে দীর্ঘ গেরিলা জীবন পেরিয়ে যেদিন অস্ত্র সমর্পন করছিলেন,সেদিনও হাজারো মানুষের মুহুর্মুহু করতালিতে মুখর চারদিক দেখেছিলেন,কিন্তু সেই করতালিতেও সংশয় ছিলো,ছিলো চাপা আশংকাও। কিন্তু মঙ্গলবারের বিকেলটা তার জীবনে ঠিকই অসাধারন দ্যুতিময় হয়ে উঠেছিলো হাজারো নেতাকর্মীর উচ্ছাস আর মুহুর্মহু শ্লোগানে,ভালোবাসার উঞ্চতায়,আলিঙ্গনের হৃদ্যতায়। উষাতন তালুকদারের সংগ্রামী জীবনের নয়া মেরুকরণ যেনো উচ্ছসিত হাজারো জনতার মেলবন্ধনে একাকার হয়ে গেলো ১৪ জানুয়ারির রোদেলা শেষ বিকেলে।

u-pic-02
শহরে এসেই প্রথম সাক্ষাত করলেন প্রিয় নেতার সাথে..
U-pic-03
কল্যাণপুর থেকে পায়ে হেঁটে দলীয় কার্যালয়ের পথে

নেতাকর্মীদের তুমুল ভালোবাসায় ভিজে ভিজে,তাদের ভালোবাসার ব্যারিকেডে বন্দী হয়ে,কয়েকশত মোটর সাইকেলের বহর নিয়ে পৌঁছালেন শহরে। আর শহরে পৌঁছেই প্রথম গেলেন প্রিয় নেতার কাছেই,যার হাত ধরে জীবনের দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন বনেজঙ্গলে,বিপ্লব আর মুক্তির স্বপ্নে। নেতাকে অবহিত করলেন পেছনে ফেলে আসা ঢাকার দিনগুলোতে নিজ চোখে দেখা রাজনীতির চালচিত্র,নানান বাঁক আর রাজপ্রাসাদের অন্দরমহলের অভিব্যক্তিও। প্রিয় নেতার সাথে আধঘন্টা সময় অতিবাহিত করে আবারো পথচলা শুরু। নেতার বাসভবন থেকে সুবিশাল মিছিল নিয়ে আরেক প্রিয় ঠিকানা দলীয় কার্যালয়ে যখন পৌঁছেছেন ততক্ষণে লোকে লোকারণ্য পুরো কার্যালয় ও আশেপাশের এলাকা।
দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহযোদ্ধা,তরুন প্রজন্মের অধিকার আদায় আন্দোলনের নেতাকর্মীরা,আত্মীয়,স্বজন,বন্ধুবান্ধব আর পুষ্পস্তবক পরিবেষ্টিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আবেগ আপ্লুত এক পরিবেশে রাখলেন হৃদয়স্পর্শী বক্তব্যও। আগামীর দিনগুলোতে সকলের সহযোগিতা কামনা করে,পাহাড়ী বাঙালি সবার জন্য নিরাপদ,শংকাহীন,অসাম্প্রদায়িক পার্বত্য চট্টগ্রাম প্রতিষ্ঠার প্রত্যয়ের কথা জানালেন উজ্জ্বল চোখে। জীবনের সব অর্জন,পাওয়া,না পাওয়া আর স্বপ্নের ঝলকানির কথাও জানালেন। বললেন,ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ে থাকার প্রতিশ্রুতির কথাও,জানালেন চিরপরিচিত তিনি,তিনিই থাকবেন,বদলাবেন না এতোটুকুও। জীবনের শ্রেষ্ঠতম এই অর্জনের জন্য নির্দ্বিধায় ধন্যবাদ জানালেন নেতাকর্মীসমর্থকসহ প্রতিটি মানুষকে,রাঙামাটির সমস্ত মানুষকেও।জানালেন,পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের পথে একটি নতুন দিগন্তের সূচনা হলো। সবপক্ষকে নিয়েই সামনের পথ পাড়ি দেয়ার অঙ্গীকারের কথাও পুনর্ব্যক্ত করলেন।

u-pic-04
দলীয় নেতাকর্মী ও সমবেত মানুষের ফুলেল অভিনন্দন
u-Pic-05
শোনালেন আশাবাদের কথা…….

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির রাঙামাটি জেলা সভাপতি গুনেন্দু বিকাশ চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় উপস্থিত ছিলেন জনসংহতি সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক প্রনতি বিকাশ চাকমা, সাংগঠনিক সম্পাদক শক্তিপদ ত্রিপুরা, তথ্য ও প্রচার সম্পাদক মঙ্গলকুমার চাকমা,সহ-তথ্য প্রচার সম্পাদক সজীব চাকমা,মহিলা সমিতির সুপ্রভা চাকমাসহ হাজারো নেতাকর্মী।
ফুলে ফুলে নেতাকে অভিনন্দিত করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি ,যুব সমিতি,পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ,পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা সমিতি ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনসহ অজস্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

দশম জাতীয় সংসদে শপথগ্রহণ শেষে রাঙামাটি ফিরে আসা উষাতন তালুকদার,এখন আর শুধু জনসংহতি সমিতির নেতাই নয়,তিনি পুরো রাঙামাটির নতুন নির্বাচিত সংসদ সদস্য,পাহাড়ের নতুন নেতা। আগামী দিনের রাঙামাটির অনেক সিদ্ধান্ত,রাঙামাটিবাসীর ভালোথাকা কিংবা মন্দথাকার অনেক কিছুই নির্ভর করছে,যার সিদ্ধান্ত বা সহযোগিতার উপর। পুরনো নেতার নতুন অবয়বকে তাই স্বাগত জানাতে হাজির হয়েছে হাজারো মানুষ,যাদের প্রত্যাশা আর প্রাপ্তির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে তাকে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে করোনায় আরও এক নারীর মৃত্যু

রাঙামাটি শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোররাতে শহরের চম্পকনগর আইসোলেশন …

Leave a Reply