নীড় পাতা » ব্রেকিং » নিরাপত্তা ঝুঁকিতে সাধারণ যাত্রীরা

নিরাপত্তা ঝুঁকিতে সাধারণ যাত্রীরা

দেশের একমাত্র রিকশাবিহীন শহর যেখানে একমাত্র পরিবহন সিএনজিচালিত অটোরিকশা। দীর্ঘকাল ধরে চালকদের সাথে স্থানীয় যাত্রীদের বেশ ভালো সম্পর্ক থাকলেও এখন আর সে সম্পর্ক খুব একটা নেই বলতেই চলে। চালকদের প্রতি যাত্রীদের নানা ধরণের অভিযোগের কারণে সে সুসম্পর্ক এখন অনেকটা গল্প।

রাঙামাটি জেলা শহরে নাম্বারবিহীন সিএনজিচালিত অটোরিকশা বৃদ্ধি পাওয়ায় যাত্রীদের নিরাপত্তা ঝুঁকি অনেক বেড়েছে। কোনো ধরনের দুর্ঘটনা বা অপরাধ সংঘটিত হলে গাড়ির নাম্বার না থাকায় কোনো মামলা বা অভিযোগও করা যাচ্ছে না। প্রশাসনের নাকের ডগায় বা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন থাকা সত্ত্বেও কিভাবে তারা এমন গাড়ি চালাচ্ছে তা নিয়ে ক্ষোভ ও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্থানীয় জনগণ।

মঙ্গলবার সরেজমিনে দেখা যায়, প্রচুর সংখ্যক নাম্বারবিহীন গাড়ি শহরের বিভিন্ন সড়কে যাত্রী পরিবহন করছে। এসব গাড়ির যেমন নেই কোনো রেজিস্ট্রেশন তেমনই এসব গাড়ি চালকের অনেকেরই নাই ড্রাইভিং লাইসেন্স। এমন অবস্থায় অনেকটা অসহায় হয়ে পড়েছে স্থানীয় যাত্রীরা। দিনের বেলায় এসব গাড়ি কিছু চালককে দেখা গেলেও রাত এসব গাড়ি চালায় অনেক অচেনা চালক। যার ফলে অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। নাম্বারবিহীন অটোরিকশা নিয়ে চালকদের মধ্যে ক্ষোভ আছে, তেমনই নিরাপত্তার শঙ্কায় ভূগছে স্থানীয় যাত্রীরা।

স্থানীয় যাত্রী আব্দুল কাদের বলেন, বনরূপা থেকে তবলছড়ি যাচ্ছিলাম, অল্পবয়সী চালক খুব দ্রুত বা বাজেভাবে গাড়ি চালাচ্ছিল তাকে বললাম গাড়ি আস্তে চালাও সে উল্টো বলে এভাবেই চলবে। পরে তার নামে অভিযোগ করার জন্য নেমে গাড়ির নাম্বার দেখতে গিয়ে দেখি গাড়ির নাম্বার নাই।

গাড়ি চালক ঝন্টু বলেন, নাম্বারসহ গাড়ি রাস্তায় চললে যাত্রীদের কোনো অভিযোগ থাকলে শুধু গাড়ির নাম্বারটি বললে ড্রাইভারকে বের করে বিচার বা অভিযোগের সমাধান করা সম্ভব হয়। কিন্তু যেসব গাড়ির কোনো নাম্বার নাই তাদের বিরুদ্ধে কে কার নামে কীভাবে অভিযোগ করবে জানি না।

রাঙামাটি পৌরসভা নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সদস্য সচিব এম জিসান বখতেয়ার বলেন, প্রশাসনের নাকে ডগায় কিভাবে এসব গাড়ি চলে তা আমার বোদগম্য নয়। রাঙামাটির মত নিরাপদ শহর আজ এসবের কারণে অনিরাপদ হয়ে যাচ্ছে। দ্রুত এসব গাড়ি বন্ধ করে যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহবান জানাই।

টেক্সী-অটোরিকশা চালক সমিতির সভাপতি পরেশ মজুমদার বলেন, নাম্বারবিহীন গাড়ি চলাচলের অনুমতি আমরা দিতে পারি না। এসব গাড়ি কিভাবে রাস্তায় চলে তা প্রশাসন বলতে পারবে।

রাঙামাটি ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক মো. ইসমাইল বলেন, রেজিস্ট্রেশন ছাড়া গাড়ি রাস্তায় চলাচলের কোনো সুযোগ নাই। আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কাপ্তাইয়ে ওষুধ সম্পর্কে মতবিনিময় সভা

বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতি কর্তৃক নকল, ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সম্পর্কে জনসচেতনতা ফিরিয়ে আনতে …

Leave a Reply