নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » নিজ দলের নেতাদের বিরোধীতায় বাদ পড়লেন সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা !

নিজ দলের নেতাদের বিরোধীতায় বাদ পড়লেন সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা !

Parlament-pic-01নিয়তির কি নির্মম পরিহাস,নিজ দলের কয়েকজন নেতার বিরোধীতা আর বিরাগভাজন হয়ে বান্দরবান জেলা থেকে নারী সংসদ সদস্য হিসেবে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাওয়া সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়লেন ! শনিবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সুচিত্রার অন্যতম বিরোধীতাকারী জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের এপিএস (একান্ত ব্যক্তিগত সহকারী) সাদেক হোসেন চৌধুরী। তিনি আরো জানান, আওয়ামীলীগের নীতি নির্ধারণী সভার সিদ্ধান্তমতে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকেই বাদ দেয়ার বিষয়টি গৃহিত হয়েছে। দশম সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া, উপজেলা নির্বাচনে সংগঠনের প্রার্থীদের বিরুদ্ধে প্রচারণায় অংশ নেয়া, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে বিগত পাঁচ বছর দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সর্ম্পক না রাখা এবং দলীয় কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকা’সহ সংগঠনের দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ রয়েছে। সংগঠনের শৃঙ্খলা অটুট রাখতে সুচিত্রা’র বিরোধীতা করেছেন জেলা আওয়ামীলীগসহ অঙ্গসংগঠনে নেতাকর্মীরা। তবে সুচিত্রা ছাড়া অন্য যে কাউকে নারী সংসদ সদস্য বানালে কারো আপত্তি থাকবে না।

অভিযোগুলো অস্বীকার করে নারী সংসদ সদস্য হিসেবে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পাওয়া বান্দরবানের নারী নেত্রী সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা বলেছেন, আওয়ামীলীগের সকলে নয়, বীর বাহাদুর দাদা’র এপিএস সাদেক হোসেন চৌধুরী, বান্দরবান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ক্যশৈহ্লা, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য কাজী মুজিবুর রহমান’সহ মুষ্টিমেয় কয়েকজন ব্যক্তি ইর্ষান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার ও বাদ দেয়ার অপতৎপরতা চালাচ্ছে।

পৌর মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও দলের সভানেত্রীর প্রতি আমার বিশ্বাস আছে, আস্থা আছে। নেত্রী যেমন কয়েকশ নারীদের মধ্যে বাছাই বিবোচনা করে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। তেমনি অপপ্রচার ও অপতৎপরতাগুলোও নেত্রীর কাছে পাত্তা পাবেনা বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

পাহাড়ী তঞ্চঙ্গ্যা সম্প্রদায়ের নারী সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমি নাকি আওয়ামীলীগের কেউই না, কেউই না হলে কিভাবে ৬/৭ বছর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ছিলাম, জেলা আওয়ামীলীগের কমিটিতে কিভাবে সদস্য রাখা হয়েছে। দশম সংসদ নির্বাচনে নৌকার ভোটের জন্য বীর বাহাদুর দাদার সঙ্গে সঙ্গে ঘুরে বেড়িয়েছি। এইসব রাজনৈতিক নোংরামী ছাড়া কিছুই নয়, বান্দরবানে ওরা ছাড়া অন্যকেউ যেন ক্ষমতা না পায় সেজন্য এই নোংরামী গুলো করছে। আমি তঞ্চঙ্গ্যা সম্প্রদায়ের না হয়ে মারমা হলে এই বিরোধীতা হতো না বলে আমি মনে করি। এই প্রসঙ্গে কথা বলতে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ক্যশৈ হ্লা’র মোবাইলফোনে কল করা হলে তিনি রিসিভ না করায় তার মন্তব্য না জানা যায়নি।

এদিকে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে, বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের আপত্তির কারণে সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যাকে বাদ দিয়ে তার স্থলে কুমিল্লা জেলার আমেনা বেগম নামের একজনকে সংযুক্ত করা হয়েছে। রাঙামাটি থেকে মনোনিত নারী সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনুও বিষয়টি শুনেছেন বলে জানিয়েছেন। এবিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার জন্য শনিবার রাতে যোগাযোগ করা হলেও ফোন ধরেননি সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা।

প্রসঙ্গত,গত বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে নারী সংসদ সদস্য হিসেবে রাঙামাটির ফিরোজা বেগম চিনু ও বান্দরবানের সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা’কে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়।

এদিকে সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যাকে মনোনয়ন দেয়ার পরও বাদ দেয়ার ঘটনায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তঞ্চঙ্গ্যার জনগোষ্ঠীর বেশ কয়েকজন নেতা। তারা বলেন, পাহাড়ের সবচে বড় জনগোষ্ঠী চাকমা’রা আওয়ামী লীগ নেতাদের স্বেচ্ছাচারিতা আর স্বজনপ্রীতির কারণ আওয়ামী লীগকে ‘না’ বলেছে, এবার পাহাড়ের চতুর্থ বৃত্তহর জনগোষ্ঠী তঞ্চঙ্গ্যারাও আওয়ামী লীগের জন্য ‘জবাব’ তৈরি করছে।

প্রসঙ্গত, রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও প্রভাবশালী নেতা অনিল তঞ্চঙ্গ্যা ২০১১ সালের ১০ জানুয়ারি অপহরণ করা হলেও আজ অবধি তার কোন খোঁজ মেলেনি। বান্দরবানে জেলা আওয়ামী লীগের ১৮ বছরের সভাপতি প্রসন্ন কান্তি তঞ্চঙ্গ্যাকে দলীয় মনোনয়ন না দেয়ায় তিনি স্বতন্ত্র নির্বাচন করলে তাকেও দল থকে বহিঃষ্কার করা হয়। এবার সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুচিত্রা তঞ্চঙ্গ্যা সংসদ সদস্য হিসেবে দলীয় মনোনয়ন পেলেও নিজ দলের বীরবাহাদুর পন্থী নেতাদের বিরোধীতার কারণে বাদ পড়লেন। ধারণা করা হচ্ছে,এইসব ঘটনার মাশুল দিতে হবে আওয়ামী লীগকে ভবিষ্যতের নির্বাচনগুলোতে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে করোনায় আরও এক নারীর মৃত্যু

রাঙামাটি শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোররাতে শহরের চম্পকনগর আইসোলেশন …

Leave a Reply