নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে লুনপিন’র গুলিতে বাংলাদেশী কাঠুরিয়া নিহত !

নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে লুনপিন’র গুলিতে বাংলাদেশী কাঠুরিয়া নিহত !

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী লুনপিন’র গুলিতে বাংলাদেশী কাঠুরিয়া নিহত হয়েছে ! নিহত কাঠুরিয়ার নাম গিয়াস উদ্দিন (৩৫)। সে জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দোছড়ি ইউনিয়নের আষাঢ়তলী গ্রামের মুত ফিরোজ আহম্মেদের পুত্র। তবে মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী গুলি করে হত্যার বিষয়টি অস্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন বিজিবি। বিষয়টি নিয়ে বিজিবি মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী লুনপিন’কে পতাকা বৈঠকের আহবান জানিয়েছেন। কিন্তু তারা এখনো কোনো সাড়া দেয়নি।
নাইক্ষ্যংছড়ি ৩১ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের কমান্ডার লেঃ কর্নেল শফিকুর রহমান জানান, কাঠ সংগ্রহ করতে গিয়ে বাংলাদেশ মায়ানমার সীমান্তের ৪৪-৪৫ নাম্বার সীমানা পিলার থেকে প্রায় ৪ কিলোমিটার দূরে মায়ানমারের অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ে বাংলাদেশী ৩ কাঠুরিয়া। বুধবার সন্ধ্যায় তিন জনকে তাড়া করে মায়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী লুনপিন সদস্যরা। আব্দুচ শুক্কুর ও মোহাম্মদ আলম নামে দুজন কাঠুরিয়া পালিয়ে আসলেও একজন এখনো নিখোঁজ রয়েছে। স্থানীয়দের দাবী মায়ানমার সীমান্তরক্ষী গুলিতে কাঠুরিয়া গিয়াস উদ্দিন (৩৫) মারাগেছে। মায়ানমার সীমান্তের অভ্যন্তরে রাঙ্গাঝিড়ি এলাকায় কাঠুরিয়ার লাশ পড়ে রয়েছে। তবে পড়ে থাকা লাশটি কার বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। মায়ানমারের লুনপিন বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে, তারা বিষয়টি অস্বীকার করছে।
স্থানীয় আষাঢ়তলী ইউপি মেম্বার নূর হোসেন জানান, কাঠ সংগ্রহ করতে বাংলাদেশী তিন কাঠুরিয়া ৪৪-৪৫ নাম্বার সীমানা পিলারের মায়ানমারের অভ্যন্তরে চলে গেলে মায়ানমার সীমান্তরক্ষী তাদের গুলি করে। দুজন কাঠুরিয়া পালিয়ে আসতে পারলেও গুলি খেয়ে গিয়াস উদ্দিন (৩৫) নামে একজন মারাগেছে। নিহত কাঠুরিয়ার লাশটি মায়ানমার সীমানার ভিতরে রাঙ্গাঝিড়ি এলাকায় পড়ে রয়েছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লামায় সহায়তা পেল কর্মহীন মানুষ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী অসহায় ও দুস্থ মানুষের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনী মানবিক সহায়তা করে চলেছে। …

Leave a Reply