নীড় পাতা » আলোকিত পাহাড় » নতুন চাকমা রাণী উজানিপাড়ার ইয়ান

নতুন চাকমা রাণী উজানিপাড়ার ইয়ান

Rangamati-Raza-Biye-pic-(8)স্ত্রী বিয়োগের দেড় দশক পর আবার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন চাকমা সার্কেল চীফ ব্যারিষ্টার রাজা দেবাশীষ রায়। আর নতুন রানী হলেন বান্দরবান শহরের উজানিপাড়ার মেয়ে ইয়ান ইয়ান। ইয়ানের বাবা দীর্ঘদিন ইন্দোনেশিয়া দূতাবাসে চাকুরি করেছেন,সেই সূত্রে ইয়ানের পড়াশুনাও ঢাকায়। হলিক্রস কলেজের মেধাবী এই ছাত্রী হৃদয় জয় করে নিলেন সুর্দশন চাকমা রাজা দেবাশীষ রায়ের। বান্দরবানের মেয়ে হিসেবে বোমাং রাজ্যের বাসিন্দা ইয়ান এবার রাজ্য বদল করে চাকমা রাজ্যে প্রবেশ করছেন,তাও আবার রাজবধূ হিসেবে !

গত ১২ ডিসেম্বর অস্ট্রেলিয়ার এডিলেইড-এ রাখাইন তরুণী ইয়ান ইয়ান’কে বিয়ে করেন রাজা। বিয়ের একদিন পর শুক্রবার রাত ৮.১৫ মিনিটের দিকে নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে নববধুসহ যুগল ছবি দিয়ে বিয়ের খবর জানান রাজা নিজেই। নতুন রাণী ‘ইয়ান ইয়ান’ও নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিয়ের ছবি আপলোড করেন। নতুন রাণী ঢাকার হলিক্রস কলেজ থেকে পাশ করার পর স্কললারশিপ নিয়ে ২০০৭ সালে অস্ট্রেলিয়া যান,সেখানে ভালো ফলাফল করায় পিএইচডি’র সুযোগ পান,এখনো সেখানে পিএচডি অধ্যয়নরত আছেন। ইয়ান’র পিতা রাখাইন হলেও মা মারমা জনগোষ্ঠির বলে জানিয়েছে তার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র।
১৯৯৮ সালের ১৫ নভেম্বর পুত্র ত্রিভুবন আর্য্যদেব রায় এবং কন্যা কুমারি আরাধনা আয়েত্রি রায় শ্রেষ্ঠাকে রেখে ম্যালেরিয়ার আক্রান্ত হয়ে অকালে প্রয়াত হন রাজার প্রথম স্ত্রী রাণী তাতু রায়। তার মৃত্যুর পর দীর্ঘ সময় ধরে দুইসন্তানকে মানুষ করার দিকেই মনোযাগি ছিলেন রাজা। সামাজিক নানা কর্মকান্ডের পাশাপাশি সার্কেলের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন তিনি। সম্প্রতি তিনি জাতিসংঘের আদিবাসী বিষয়ক স্থায়ী ফোরামের সদস্য হিসেবে টানা দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচিত হন। পৃথিবীর অসংখ্য রাষ্ট্র,অঞ্চল ও পার্বত্য এলাকার দুর্গম এলাকা সফর করা চাকমা রাজা ভ্রমনপিপাসু হিসেবে পরিচিত। একই সাথে পার্বত্য চট্টগ্রামের আইন, ভূমি ও পরিবেশ বিষয়ে তার বেশ কয়েকটি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। ব্রিটেন থেকে বার এট ল ডিগ্রি নেয়া রাজা সাথে আইনপেশায়ও নিয়োজিত। অন্যদিকে রাজার একমাত্র পুত্র কুমার আর্য্যদেব রায় কানাডার সেন্ট মেরি ইউনিভার্সিটিতে এবং মেয়ে আরাধনা ভারতের তামিলনাডুর কোডানিক্যাল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবেন এবছর।

রাজার নতুন বিয়ের খবরে উৎফুলিত সাধারন মানুষ ফেসবুকেই নতুন রানী ও রাজাকে অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসাচ্ছেন। অনেকেই নতুন রাণী ও রাজার নতুন জীবন চলার পথ সুন্দর হওয়ার আশাবাদ জানিয়ে দিয়েছেন অভিনন্দন বার্তাও। নতুন রাণীকে নিয়ে রাজা রাঙামাটি এলে তাকে বরণ করে নেয়ার কথাও জানিয়েছেন কেউ কেউ। অসংখ্য মানুষ রাজা ও নতুন রানীতে অভিনন্দন জানিয়েছেন।
রাজা দেবাশীষ তার ফেসবুক স্ট্যাটাসেই সবার অভিনন্দনের জবাবে বলেন,-To all of you, friends, thank you, from the bottom of OUR hearts (I better learn to be WE, now), for wishing us, Yan and me, on our wedding, in Adelaide, Australia, on 12 December, 2013. It means a LOT to us and will keep on inspiring us, to forge a strong partnership, with love, commitment, tolerance, sensitivity and compassion, while respecting each others’ individuality. And to help make others happy too, in whatever way we can.
আর আবেগ আপ্লুত রাণী তার স্ট্যাটাসে বলেন,”He ( Raja ) has stolen my heart… And locked it inside his own heart”| রাণীর এই হৃদয়স্পর্শী স্ট্যাটাস ছুঁয়ে গেছে অনেককেই।
রাজার ঘনিষ্ঠদের বরাতে জানা গেছে,অস্ট্রেলিয়ায় রাজার বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রায় ৮০ জন অতিথি উপস্থিত ছিলেন। তবে বিয়েতে বর কণে দুজনই আদিবাসীদের প্রথাগত পোশাক পড়েনিন। রাজা ধূসর রঙের স্যুট টাই এবং রানী ধবধবে সাদা ইউরোপিয়ান পোশাক পরিধান করেন। দুজনকে বিয়ে অনুষ্ঠানে বেশ প্রাণবন্ত ও উচ্ছসিত দেখাচ্ছিলো। ধারণা করা হচ্ছে,রাজা এবং রাণী দেশে ফিরে এলে তাদের বিয়ের বড় কোন রিসেপশন অনুষ্ঠান হবে এবং সেখানেই তারা দুজন ঐতিহ্যবাহী পোশাকে অংশ নিবেন।
রাজার বিয়ে প্রসঙ্গে মন্তব্য জানতে চাইলে রাজার স্নেহভাজন হিসেবে পরিচিত বেসরকারি উন্নয়নসংস্থা ‘সাস’ এর নির্বাহী পরিচালক ললিত সি চাকমা বলেন,আমরা খুবই আনন্দিত আমাদের প্রিয় রাজাবাবু দীর্ঘ একাকীত্বের অবসান ঘটিয়ে আবার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। নতুন জীবনসঙ্গী তার বিস্তৃত কাজের ক্ষেত্রকে আরো সুন্দর ও গতিশীল রাখতে অনুপ্রেরণাদায়ি হিসেবে কাজ করবেন বলেই আমার বিশ্বাস।Rangamati-Raza-Biye-pic-(5)

Micro Web Technology

আরো দেখুন

সংকটে হাঁসফাঁস পাহাড়ে প্রাথমিকের ১৯ ছাত্রাবাস

পার্বত্য রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলার বিলাইছড়ি ইউনিয়নের নতুন পাড়ার বাসিন্দা অম্বামণি ত্রিপুরা। দুর্গম এলাকায় পড়াশোনার সুবিধা …

Leave a Reply