নীড় পাতা » করোনাভাইরাস আপডেট » দেশে করোনায় একদিনে ২০১ মৃত্যুর রেকর্ড

দেশে করোনায় একদিনে ২০১ মৃত্যুর রেকর্ড

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে প্রথমবারের মতো একদিনে দুই শতাধিক মৃত্যুর সাক্ষী হলো বাংলাদেশ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে এই ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন ২০১ জন। এর আগে গত পরশু সোমবার (৫ জুলাই) একদিনে ১৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল করোনায়। আজকের আগ পর্যন্ত সেটিই ছিল একটি সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টাতেও দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ১১ হাজারের বেশি। এ নিয়ে দেশে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হলো ৯ লাখ ৭৭ হাজারের বেশি।

বুধবার (৭ ‍জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার সই করা কভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়মিত বিজ্ঞপ্তিতে গত ২৪ ঘণ্টার করোনা পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়েছে। এনিয়ে টানা ১১তম দিনেও দেশে একদিনে করোনায় আক্রান্ত শতাধিক ব্যক্তি মারা গেলেন।

প্রথমবারের মতো ২ শতাধিক মৃত্যু
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন ২০১ জন। দেশে একদিনে করোনা সংক্রমণ নিয়ে দুই শতাধিক মৃত্যু দেশে এই প্রথম। এর আগের দিন দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে ১৬৩ জন এবং আগের দিন ১৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এই দুই দিনের রেকর্ড ছাড়িয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ছাড়াল দুইশ। এ নিয়ে দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে মোট মৃত্যু দাঁড়াল ১৫ হাজার ৫৯৩ জনে। সংক্রমণের বিপরীতে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৬০ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যারা করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন, তাদের মধ্যে পুরুষ ১১৯ জন, নারী ৮২ জন। তাদের মধ্যে ১২ জন বাসায় ও ১৮৮ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। বাকি একজনকে হাসপাতালে নেওয়ার পর মৃত পাওয়া গেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃতদের বয়সভিত্তিক তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ১১৫ জনের বয়সই ৬০ বছরের বেশি। এছাড়া ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ৪৭ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ২৫ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী ৯ জন, ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী চার জন এবং ১১ থেকে ২০ বছর বয়সী একজন গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন।

বিভাগভিত্তিক তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, গত কয়েকদিনের মতো গত ২৪ ঘণ্টাতেও সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে খুলনা বিভাগে। এ বিভাগে মারা গেছেন ৬৬ জন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৮ জন মারা গেছেন ঢাকা বিভাগে। তৃতীয় সর্বোচ্চ ২১ জন মারা গেছেন চট্টগ্রামে। এছাড়া রাজশাহী বিভাগে ১৮ জন, রংপুর বিভাগে ১৪ জন, সিলেট বিভাগে ৯ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে আট জন ও বরিশাল বিভাগে সাত জন মারা গেছেন গত ২৪ ঘণ্টায়।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড
স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৬০৫টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এসব ল্যাবে ৩৭ হাজার ১৪৭টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৫ হাজার ৬৩৯টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে ৬৮ লাখ ২৯ হাজার ৮৩২টি নমুনা পরীক্ষা হলো।

গত ২৪ ঘণ্টায় যেসব নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, তার মধ্যে ১১ হাজার ১৬২টিতে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এটি দেশে একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণ শনাক্তের রেকর্ড। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় দিনই দেশে ১১ হাজার ৫২৫ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্তের নতুন রেকর্ড হয়েছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে।

এ নিয়ে দেশে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হলো ৯ লাখ ৭৭ হাজার ৫৬৮ জনের শরীরে। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৩২ শতাংশ। আর এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩১ শতাংশ।

বেড়েছে সুস্থতাও
আগের দিন দেশে দেশে করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ৫ হাজার ৪৩৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা কিছুটা বেড়েছে। এই সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫ হাজার ৯৮৭ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত মোট ৮ লাখ ৫০ হাজার ৫০২ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন। সংক্রমণ বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৭ শতাংশ।

সূত্র: সারাবাংলা ডটনেট

Micro Web Technology

আরো দেখুন

স্বাস্থ্য বিভাগকে সুরক্ষা সামগ্রী দিলো রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্ট

নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রাঙামাটির ১২টি সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রসমূহে স্বাস্থ্য …

Leave a Reply