নীড় পাতা » পার্বত্য উন্নয়ন » দুর্গম রামেরীপাড়ায় ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প ও শীতবস্ত্র বিতরণ

দুর্গম রামেরীপাড়ায় ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প ও শীতবস্ত্র বিতরণ

Bandarban-Armi-PiC--0Z2সেনাবাহিনীর উদ্যোগে বান্দরবানে দুর্গম রামেরী পাড়ায় পাহাড়ী জনগোষ্ঠীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে বান্দরবান ৬৯ সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রীগেডিয়ার জেনারেল মো: সাঈদ সিদ্দিকী পিএসসি চিকিৎসা ও শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচীর উদ্ধোধন করেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বান্দরবান সদর সেনা জোন কমান্ডার লে: কর্নেল ইরফানুল ইসলাম খান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ, প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যাপক মোঃ ওসমান গনিসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।
সেনাসূত্র জানায়, ওল্ড ফোজিয়ানস্ এসোসিয়েশন, লায়ন্স ফাউন্ডেশন ও চট্টগ্রাম সেন্টাল লায়ন্স ক্লাবের সহযোগীতায় ৬৯ সেনা রিজিয়ন আয়োজিত দিনব্যাপী চিকিৎসা ক্যাম্পে বান্দরবান সদর উপজেলার দূর্গম রামেরী পাড়াসহ আশপাশের গ্রামগুলোর প্রায় ৬ শতাধিক পাহাড়ী নারী-পুরুষ’কে চক্ষু, চর্ম, মেডিসিন এবং গাইনী বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে। চিকিৎসা নেয়া রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধ ও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

এছাড়াও দূর দূরান্ত থেকে চিকিৎসা নিতে আসা পাহাড়ীদের দুপুরের খাবারের ব্যবস্থাও করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ৬৯ পদাতিক রিজিয়ন কমান্ডার ব্রীগেডিয়ার জেনারেল মো: সাঈদ সিদ্দিকী বলেছেন, পার্বত্যাঞ্চলের মানুষের নিরাপত্তা, শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষায় পাশাপাশি পাহাড়ী জনগোষ্ঠীর আর্থসামাজিক উন্নয়নেও ভূমিকা রাখছে সেনাবাহিনী। Bandarban-Armi-PiC-MZ1
দুর্গমাঞ্চলগুলোতে চিকিৎসা বঞ্চিত পাহাড়ী জনগোষ্ঠীর মাঝে চিকিৎসা সেবা পৌছে দেয়ার ক্ষেত্রেও কাজ করে যাচ্ছে। পাহাড়ের হত-দরিদ্র, অসহায় শীতার্ত মানুষের পাশে সব সময় দাঁড়াবে সেনাবাহিনী। পর্যায়ক্রমনে জেলার রুমা, থানছি, রোয়াংছড়ি, আলীকদমসহ জেলার দূর্গমাঞ্চলগুলোতে বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্প করা হবে। সেনা ক্যাম্পগুলোর মাধ্যমে বিভিন্নস্থানে শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচীও অব্যাহত রাখা হবে বলেও জানিয়েছেন সেনা কর্মকর্তারা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লামায় জেলা পরিষদ নির্মাণাধীন সেতু ধসের শঙ্কা

বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি এলাকা বড়পাড়া সংলগ্ন ইয়াংছা খালের ওপর কোটি টাকা …

Leave a Reply