নীড় পাতা » স্বাস্থ্য » ডায়েটে থেকেও ওজন কমে না এই ৫টি ভুলের জন্য!

ডায়েটে থেকেও ওজন কমে না এই ৫টি ভুলের জন্য!

অবৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে ডায়েট করতে গেলে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। তাই চিকিৎসকরাও সব সময়েই ব্যালান্সড ডায়েট করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। দ্রুত স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন কমাতে পুষ্টিবিদরা প্রোটিন ডায়েটের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কিন্তু প্রোটিন ডায়েটের ক্ষেত্রেও কয়েকটি ভুলের জন্য সারা মাসের চেষ্টাটাই মাটি হয়ে যায়! আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক…

১) প্রোটিন ডায়েটে থাকলেও এর সঙ্গে দৈনন্দিনের খাদ্য তালিকায় সঠিক পরিমাণে কার্বহাইড্রেট জাতিয় খাবার রাখা জরুরি। পরিমাণ মতো প্রোটিন, কার্বহাইড্রেট জাতিয় খাবার না খেলে দ্রুত ওজন কমানো কিছুতেই সম্ভব নয়।

২) প্রোটিন ডায়েটে রয়েছেন মানেই শুধু মাছ, ডিম বা মাংস খেলেই চলবে না। সুস্থ শরীরের জন্য সব রকমের প্রোটিনেরই প্রয়োজন রয়েছে। সব রকম প্রোটিনই সঠিক পরিমাণে খেলে তবেই সুস্থ থাকা সম্ভব। একই সঙ্গে ওজনও কমবে ঝটপট।

৩) প্রোটিন ডায়েটে রয়েছেন বলে দৈনন্দিনের খাদ্য তালিকায় মাছ, ডিম, বাদাম, ডালের পরিবর্তে প্রোটিন শেক বা প্রোটিন বার চলবে না। কারণ, এতে শরীর তার প্রয়োজনীয় পুষ্টি থেকে বঞ্চিত হবে।

৪) শরীরের জোর বাড়াতে, পেশীর ক্ষয় রুখতে পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রোটিন খাওয়ার প্রয়োজন। অনেকেই সে জন্য শরীরচর্চার পর অনেকটা প্রোটিন শেক খেয়ে ফেলেন। অতিরিক্ত মাত্রায় প্রোটিন খেলে তা শরীরে ফ্যাট হিসেবে জমা হতে থাকে। ফলে ওজন কমার বদলে উলটে বেড়ে যেতে পারে।

৫) প্রোটিন ডায়েটে থাকলে দিনের প্রতিটা মিলেই একটু-আধটু প্রোটিন খাওয়া উচিত যা অনেকেই খান না। দিনের প্রতিটা মিলে অন্তত ২০ থেকে ৩০ গ্রাম প্রোটিন খাওয়া প্রয়োজন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

আপনি কি খুব রোগা? জেনে নিন চটজলদি ওজন বাড়ানোর কয়েকটি সহজ উপায়

দ্রুত ওজন ঝরিয়ে ফেলাটা যতটা কষ্টকর, ওজন বাড়ানো ততটা কষ্টকর নয়। বরং বেশ মজার! মন …

Leave a Reply