নীড় পাতা » ব্রেকিং » জেলা পরিষদ লুটপাটের প্রতিষ্ঠান: বারেক সরকার

লংগদুতে কৃষকলীগের সভা

জেলা পরিষদ লুটপাটের প্রতিষ্ঠান: বারেক সরকার

বক্তব্য রাখছেন বারেক সরকার

‘জনগনের চাহিদা পূরণ করতে ব্যর্থ রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ, তারা জনগনের চাওয়া পাওয়ার মূল্যায়ন করে না। কিছু নেতাকর্মীর পকেট ভারি করছে তারা। এটা জেলা পরিষদ না এটা ‘জ্বালা’ পরিষদ। জেলা পরিষদ একটি লুটপাটের প্রতিষ্ঠান।’

শনিবার লংগদুতে উপজেলা কৃষকলীগের সাংগঠনিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ নিয়ে এমন মন্তব্য করেছেন লংগদু উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকার।

তিনি বলেন, ‘গত অর্থ বছরে বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএফডিসি) মাধ্যমে জেলায় ২ কোটি টাকার মৎস্য চাষের প্রকল্প বাস্তবায়ন করার কথা জেলা পরিষদের। রাঙামাটির সাংসদ দীপংকর তালুকদার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে অনুরোধ করেছেন, লংগদু উপজেলায় এক কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ার জন্য, কিন্তু জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তা করেনি। তিনি এ দুই কোটি টাকার পুরাটাই বাঘাইছড়িতে বরাদ্দ দিয়েছে। কিন্তু আসলে তা কতটুকু বাস্তবায়ন হয়েছে বাঘাইছড়ির নেতারা তার খবর নেবেন।

বারেক বলেন, “চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা একজন সাম্প্রদায়িক লোক, তিনি চেয়ারম্যান থাকাকালীন উন্নয়নের সমবন্টন হয়নি। জেলা পরিষদ কর্তৃক একটি প্রকল্পও সঠিক বাস্তবায়ন হয়নি। ভবিষ্যতে আওয়ামীলীগের জন্য ভোট চাইতে হলে লংগদুতে বৃষকেতুকে আসতে হবে। ভোটের সময় লংগদু আর উন্নয়নের বেলায় বাঘাইছড়ি তা হতে পারে না।”

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, ‘উপজেলা আওয়ামীলীগ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সাংগঠনিক অবস্থা ভালো না। যুবলীগের কমিটি নাই দুই বছর, উপজেলা ছাত্রলীগের মেয়াদ শেষ হয়েছে অনেক দিন। কলেজ ছাত্রলীগের মেয়াদোত্তীর্ণ এক বছরের বেশি সময় ধরে। উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন হয়েছে প্রায় এক বছর, কিন্তু এখনো অনুমোদন হয়নি। কমিটি অনুমোদনের জন্য যদি টাকা দিতে হয় তবে আমরা তা দিতে প্রস্তুত। প্রয়োজনে আমাকে বাদ দিয়ে হলেও কমিটির অনুমোদন দিন। আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করতে হলে অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনকে শক্তিশালী করার বিকল্প নেই।’

বাংলাদেশ কৃষকলীগ লংগদু উপজেলা শাখার সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা আলমের সঞ্চালনায় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- জেলা কৃষকলীগের সভাপতি জাহিদ আক্তার, সাধারণ সম্পাদক উদয় শংকর চাকমা, বাঘাইছড়ি উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুল আজিজ, সাধারণ সম্পাদক ওসমান গনি, বাগাচত্বর ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি মুজাফ্ফর আহামেদ প্রমুখ।

সাংগঠনিক সভা শেষে বাংলাদেশ কৃষকলীগ লংগদু উপজেলা শাখার বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত করে ১৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এতে মোস্তফা মিয়াকে আহ্বায়ক ও হারুনুর রশিদ (রাইটার)’কে যুগ্ন আহ্বায়ক করা হয়েছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

যাচাই-বাছাইয়ে বাদ পড়লেন অমর-পূর্ণিমা

আসন্ন রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সির পদের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বাছাই অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল …

Leave a Reply