নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » জামায়াত শিবিরের তান্ডবে অবরুদ্ধ বান্দরবান

জামায়াত শিবিরের তান্ডবে অবরুদ্ধ বান্দরবান

Bandarban-Oborod-Pic_2বান্দরবানের হলুদিয়া থেকে প্রায় ৬ কিলোমিটার পর্যন্ত বান্দরবান-চট্টগ্রাম প্রধান সড়ক ছোট-বড় গাছের গুড়ি ফেলে অবরোধ করে রেখেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। প্রধান সড়কে ধংসাত্মক কর্মকান্ডের মাধ্যমে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় সম্পূর্ন অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বান্দরবানবাসি। রোগী নিয়েও এ্যাম্বুলেন্স বান্দরবান ছেড়ে যেতে পারছে না। বাধ্য হয়ে ভ্যানগাড়ী দিয়ে ধানী জমির মাঝদিয়ে রোগী নিয়ে যেতে দেখা গেছে স্থানীয়দের । সড়কের বাজালিয়াসহ কয়েকটি স্থানে লাঠি-সুঠা নিয়ে মারমুখী অবস্থানে দেখাগেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের। এসময় সিএনজি, পিকআপসহ কয়েকটি যানবাহন ভাংচুর করে অবরোধকারীরা।

জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার মৃত্যু পরোয়ানা কার্যকরের প্রতিবাদে বুধবার ভোররাত থেকেই বান্দরবান-চট্টগ্রাম প্রধানসড়কের হলুদিয়া, কলঘর, বাজালিয়া এবং দৈস্তিদারহাট এলাকাসহ কয়েকটিস্থানে লাঠি-সুঠা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রাস্তায় নেমে ছোট-বড় অসংখ্য গাছের গুড়ি ফেলে এবং টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। এসময় সিএনজি, পিকআপসহ কয়েকটি যানবাহন ভাংচুর করে অবরোধকারীরা।
এছাড়াও রাস্তার পাশের বড়বড় গাছ কেটে প্রধান সড়কে ফেলে রেখেছে নেতাকর্মীরা। বুধবার সকাল থেকেই প্রধান সড়কে লাঠি-সুঠা নিয়ে অবস্থান নিয়ে রাস্তায় মিছিল করতে দেখাগেছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের। অবরোধকারীদের ধংসাস্তুপ তান্ডব এবং কঠোর অবস্থানের কারণে সম্পূর্ন অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে বান্দরবানের কয়েক লক্ষা মানুষ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমতিয়াজ আহম্মেদ জানান, জামায়াত-শিবিরের ধংসাস্তুপ কর্মকান্ডের খবর পেয়েছি। তবে এলাকাটি সদর থানার আওতাধীন নয়।

প্রসঙ্গ,বান্দরবান শহরে জামাতের শক্ত সাংগঠনিক ভীত না থাকলেও কেরাণীহাট থেকে বান্দরবান যাওয়ার পথটি জামাতনিয়ন্ত্রিত এলাকায় অবস্থিত। ফলে এই সড়কে জামাত নাশকতা করলেই বিপাকে পড়েন বান্দরবানের মানুষ।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

নাইক্ষ্যংছড়িতে ইয়াবাসহ সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আটক

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিসানুল হককে (২৯) ইয়াবাসহ আটক করেছে বাংলাদেশ …

Leave a Reply