নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » ছেলের হাতে মা-বাবা আহত হয়ে হাসপাতালে

দীঘিনালায়

ছেলের হাতে মা-বাবা আহত হয়ে হাসপাতালে

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় নেশাখোর বখাটে ছেলের মারধরের শিকার হয়ে আহত বৃদ্ধ মা-বাবা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনাটি সোমবার দুপুর দুইটার দিকে উপজেলার বেতছড়ি এলাকায়। আহত বাবা মোতালেব (৫৮) এবং মা নার্গিসকে (৪৫) দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসার পর জেলা সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আর মা-বাবাকে জঘন্যভাবে মারধর করেছে আপন ছেলে আ. রশিদ (২৫)। এতে বাবার কান কেটে গেছে এবং মা’র মাথায় জখম হয়েছে।

রশিদের বড় ভাই মো. বাছির (৩২) হাসপাতালে রয়েছেন মা-বাবার সাথে। বাছির জানান, ঘটনার সময় তিনি বাড়িতে ছিলেননা। তবে তিনি পরিবারের অন্যদের নিকট শুনেছেন, দুপুরে হঠাৎ বাড়িতে ঢুকেই রশিদ উত্তেজিত হয়ে মা-এবং বাবাকে মারধর শুরু করে। এমন সংবাদ পেয়ে তিনি বাড়িতে গিয়ে আহত মা-বাবাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। বাছির আরও জানান, তার ছোট ভাই রশিদ ইয়াবা সেবনকারী। সে প্রায়ই বাড়িতে গিয়ে এমন অঘটন ঘটায়; মা-বাবাকে রশিদ আগেও মেরেছে।

সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার মো. সজিব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তিনিও স্থানীয়দের কাছ থেকে ঘটনাটি শুনেছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছেন উপসহকারী চিকিৎসা কর্মকর্তা মো. রাশেদুল ইসলাম। রাশেদুল ইসলাম জানান, সাইজকরা কাঠের আঘাতে মোতালেবের বাম কান কেটে গেছে এবং নার্গিসের মাথার পিছনে জখম হয়েছে। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলাসদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব জানান, এরকম ঘটনার অভিযোগ পেলে অপরাধী ছেলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

মা-বাবাসহ ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

খাগড়াছড়িতে পৃথক ধর্ষণের ঘটনায় বাবা-মাসহ ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। খাগড়াছড়ি নারী ও শিশু …

Leave a Reply