নীড় পাতা » ব্রেকিং » ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে এ কি অভিযোগ !

ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে এ কি অভিযোগ !

ব্যবসায়িক লেনদেনের জের ধরে রাঙ্গুনিয়া থেকে তিনটি ডাম ট্রাক জোর পূর্বক ছিনতাই করে নিয়ে গেছেন রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুল জব্বার সুজনের নেতৃত্বে একদল ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মী। গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সন্ধ্যা ছয়টায় ছাত্রলীগ নেতা সুজনের নেতৃত্বে ১০-১২টি মোটর সাইকেল যোগে একদল যুবক রাঙ্গামাটি থেকে রাঙ্গুনিয়ার রাজানগর ইউনিয়নের কাউখালি রাস্তার মাথা এলাকায় এসে ইটভাটার মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত তিনটি ডাম ট্রাকের চালককে মারধর করে জোর পূর্বক ট্রাক তিনটি রাঙামাটি শহরে নিয়ে গেছেন। এঘটনায় রাঙ্গুনিয়ার রাজানগর ও ইসলামপুর ইউনিয়নে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। রাঙামাটি থেকে মোটর সাইকেল বহরে এসে রাঙ্গুনিয়া থেকে ট্রাক ছিনতাইয়ের খবর ছড়িয়ে পড়লে রাঙ্গুনিয়ার রাজানগর ও ইসলামপুর এলাকার ক্ষুদ্ধ লোকজন তাৎক্ষণিক চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়কের রাণীরহাট এলাকায় ব্যারিকেড দেন। এতে শতশত যাত্রী দূর্ভোগে পড়েন। সড়কের দুইপাশে কয়েক’শ গাড়ি আটকা পড়ে। চার ঘন্টা পর রাত সাড়ে দশটায় প্রশাসনের মধ্যস্থতায় ছিনতাই হওয়া ট্রাক তিনটি রাঙ্গামাটি থেকে ফেরত আনার পর সড়ক থেকে ব্যারিকেড তুলে নেন স্থানীয়রা। রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন, এবং রাতেই ছিনতাই হওয়া ট্রাক তিনটি ফেরত আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানায়, রাঙামাটির রুবেল মোটর্সের মালিক ও রাঙ্গুনিয়ার ইসলামপুর ইউনিয়নের জনৈক আইয়ুব আলীর পুত্র মো. রুবেলের কাছে মোটা অংকের টাকা পাবেন রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুল জব্বার সুজন। ব্যবসায়িক লেনদেনকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট বিরোধের জের ধরে তিনি গতকাল রুবেলের পরিবারের মালিকানাধীন ডাম ট্রাক তিনটি জোর পূর্বক নিয়ে যান। রুবেল পাওনা টাকা না দিয়ে দেশ ত্যাগ করছেন এমন সন্দেহে ছাত্রলীগ নেতা সুজন এঘটনা ঘটান বলে তার ঘনিষ্ট সুত্র জানায়। রাতে ট্রাক তিনটি ফেরত দেয়ার পর ক্ষুদ্ধ ইসলামপুর ও রাজানগর এলাকার মানুষ রাঙামাটি সড়ক থেকে ব্যারিকেড তুলে নিলে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।
রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মো. হুমায়ুন কবির বলেন, সম্ভবত ব্যবসায়িক লেনদেন থেকে বিরোধের জের ধরে ঘটনার সুত্রপাত হয়। রাতেই ট্র্যাকগুলো রাঙ্গামাটি থেকে নিয়ে আসা হয়েছে। সড়কের ব্যারিকেড তুলে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এ প্রসঙ্গে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন শুক্রবার এক বিবৃতিতে বলেছেন,মূলত ব্যবসায়িক লেনদেনের কারণে রাঙামাটির রুবেল মোটর্সের মালিক ও রাঙ্গুনীয়া ইসলাম পুর ইউনিয়নের জনৈক আইয়ুব আলীর পুত্র মোঃ রুবেলের ম্যানেজার মোঃ সালামের উপস্থিতিতে আলোচনা সাপেক্ষে একটি ডাম্প ট্রাক ও একটি মিনি পিকআপ রাঙামাটিতে আনা হয়েছে। এসময় ডাম্প ট্রাকের চালককে মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। রাঙ্গুনিয়া থেকে ৩টি ডাম্প ট্রাক ছিনতাই করা হয়নি। এ সময় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কোনো কর্মী এ কাজে জড়িত ছিল না।’
বিবৃতিতে তিনি দাবি করেন, মোঃ রুবেলের নেতৃত্বে রাঙ্গুনিয়ার রাজানগর ইসলামপুর এলাকার লোকজনকে নিয়ে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সড়কের রানীরহাট এলাকায় সড়কে ব্যারিকেড দেয়ায় শত শত যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়েন, এর জন্য মোঃ রুবেল দায়ী।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply