নীড় পাতা » ব্রেকিং » ছাত্রলীগের বিবৃতি

ছাত্রলীগের বিবৃতি

BSL-logoরাঙামাটি সরকারি কলেজে শনিবার সংঘটিত সংঘর্ষের ঘটনায় নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করে সংবাদ মাধ্যমে একটি বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রাঙামাটি সরকারি কলেজ কমিটি।
বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার সকাল ১০.৩০ ঘটিকার সময় প্রতি সপ্তাহের ন্যায় কলেজ ছাত্রলীগের সাপ্তাহিক মিছিল ও মিছিল পরবর্তী সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভা শেষ হওয়ার পর ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অর্ণব ত্রিপুরা (সৌরভ) ক্যান্টিনে যাওয়ার পথে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিতিশ চাকমা ও সাংগঠনিক সম্পাদক অর্ণব ত্রিপুরা তাকে ডেকে নিয়ে বলেন, তুমি চাকমা নাকি ত্রিপুরা? জবাবে অর্ণব ত্রিপুরা বলে, ‘আমি ত্রিপুরা’। তখন পিসিপি’র সাধারণ সম্পাদক নিতিশ চাকমা ও সাংগঠনিক সম্পাদক বলে আমাদেরকে একটু সময় দাও কথা আছে ! বলে অর্ণব ত্রিপুরাকে কলেজ লাইব্রেরীর দিকে নিয়ে যেতে চায়। অর্ণব ত্রিপুরা বলেন, কি কথা আছে এখানেই বলেন, কিন্তু পিসিপি নেতারা অর্ণব ত্রিপুরাকে জোর পূর্বক লাইব্রেরীর দিকে নিয়ে যাওয়ার সময় সে পারিপার্শ্বিক অবস্থা খারাপ দেখে, দৌড় দিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের সন্ত্রাসীরা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে অর্ণব ত্রিপুরাকে পিছন দিক থেকে দা, ছোড়া, হাতুড়ি ও লাঠি-সোঠা নিয়ে ব্যাপক মারধর করলে সে গুরুতর আহত হয়।’

‘অর্ণব ত্রিপুরা আতœরক্ষার্থে দৌড় দিয়ে পালায়ে কলেজ অধ্যক্ষের কক্ষে গেলে, সেখানে অধ্যক্ষের কক্ষ বন্ধ থাকায় পাশের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রন কক্ষে আশ্রয় নেয়, কিন্তু সেইখানেও শেষ রক্ষা না হওয়ায়, প্রাণে বাঁচার জন্য উক্ত কক্ষের টয়লেটে প্রবেশ করে এবং ভিতর থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। তখন পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ নামধারি সশস্ত্র সন্ত্রসীরা অর্ণব ত্রিপুরার আশ্রয় নেয়া টয়লেটে প্রবেশ করতে না পেওে, কক্ষের বাহিরে এসে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী ও ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের উপর সশস্ত্র হামলা শুরু করে। এতে আনুমানিক ২০-২৫ জন সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী ও ছাত্রলীগের নেতা কর্মী আহত হয় এবং ৭ জন গুরুতর আহত হয়। পরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী অবস্থানে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পিসিপি’র সন্ত্রাসীরা কলেজ থেকে চলে যাওযার সময় কলেজের সামনের ৫-৬ দোকানে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে প্রবেশ করে মালামাল ও টাকা পয়সা লুট ও ভাংচুর এবং ৩-৪টি মোটর সাইকেল ও ৫-৬টি ভ্যান গাড়ীতে অগ্নিসংযোগ করে। এসময় আরো অর্ধ-শতাধিক সাধারণ ছাত্রছাত্রী ও নিরীহ পথচারী গুরুত্বর আহত হয়। আহতদেরকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। কিছু সংখ্যক গুরুতর আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল রেফার করা হয়।’

বিবৃতিতে,পিসিপি’র নেতৃত্বে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রী ও কলেজ ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের উপর পূর্বপরিকল্পিতভাবে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, রাঙামাটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শাখার পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয় এবং হামলায় অংশ নেয়া পিসিপি’র সন্ত্রাসীদের আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদানের দাবি জানানো হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

One comment

  1. amraw tibro ninda o shontrashider dristantho mulok shastir dabi korci…………….

Leave a Reply

%d bloggers like this: