নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » চুক্তি বাস্তবায়নে আল্টিমেটাম জেএসএস’র,নইলে অসহযোগের হুমকি

চুক্তি বাস্তবায়নে আল্টিমেটাম জেএসএস’র,নইলে অসহযোগের হুমকি

DSC03536‘পার্বত্য চুক্তি নিয়ে আর কত অপেক্ষা। এই মাসে দেশ স্বাধীন হয়েছিল আর এই মাসে সরকারের সাথে ১৯৯৭ সালে চুক্তি স্বাক্ষর করা হলেও ১৭ বছর পূর্তিতে তা পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়নের পরিবর্তে ধীর গতি দেখা যাচ্ছে। সরকার চুক্তি নিয়ে তাল বাহানা করছে।’ পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির ১৭তম বর্ষপূতি অনুষ্ঠানে রাঙামাটি জেলার জিমনেসিয়াম মাঠে মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত গণসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সাধারন সম্পাদক প্রণতি বিকাশ চাকমা এইসব কথা বলেছেন।
তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন, সরকার শুধু চুক্তি বাস্তবায়নের নামে চুক্তি নিয়ে তামাশা করছে। আসলে সরকারের সদিচ্ছা নাই । মৃত্যুর পর আমাদের যেখানে সমাধি করা হয় যেই শ্মশান ঘাট তা আজ বিজিবি’র জন্য দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। গত ২৯ ডিসেম্বর ঢাকায় আমাদের দলের সভাপতি সরকারকে যে আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে সরকার সেই সময়ের আগেই চুক্তি বাস্তবায়নে রূপ দেবে বলে আশা প্রকাশ করছি।

প্রণতি বিকাশ চাকমা আরো বলেন, এই সমঅধিকার, ইউপিডিএফ ও সংস্কার সরকারের সৃষ্টি। আবার অন্যদিকে সরকার বলছে তাদের বিরোধীতার কারনে নাকি চুক্তি বাস্তবায়ন বাধা। এই সমাবেশের মাধ্যমে সরকারে বলতে চাই, যাদের এখানে আনা হয়েছে তাদের সম্মানজনকভাবে তাদের এখান থেকে নিয়ে যাওয়া হোক।
তিনি আরো বলেন, ভূমি সমস্যা সমাধান না করে এখানে কোন প্রতিষ্ঠান করা ঠিক হবে না। আগে ভূমি সমস্যা সমাধান তারপর আমাদের সাথে আলোচনার মাধ্যমে ১টা ৫টা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করলেও আমরা তাতে বাধা দিবো না। এই অসহযোগ আন্দোলনের মাধ্যমে চুক্তি পূনাঙ্গ বাস্তবায়ন করা হবে।

কেন্দ্রীয় কমিটির ষ্টাফ সদস্য উদয়ান ত্রিপুরা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সাথে কোনরূপ আলোচনা না করেই অন্তর্বর্তী তিন পার্বত্য জেলা পরিষদের আকার বাড়ানোর তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এই জেলা পরিষদ সরকার দলীয় নেতাদের পেট ভরানোর পরিষদে রূপ নিয়েছে। এই জেলা পরিষদ সহ আঞ্চলিক পরিষদের নির্বাচনের দাবি জানানো হয়।
গণ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গন যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী, বাংলাদেশ আদিবাসি ফোরামের পার্বত্যাঞ্চল শাখার সভাপতি প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির তথ্য ও প্রচার সম্পাদক মঙ্গল কুমার চাকমা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের প্রভাষক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন (মাহিন)। সমাবেশে দলের বিভিন্ন স্তরের নেতা কর্মীরা বক্তব্য দেন। সমাবেশ পরিচালনা করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি রাঙামাটি জেলার সাধারন সম্পাদক নীলোৎপল খীসা। সভার সভাপতিত্ব পাবত্য চট্টগ্রাস জনসংহতি সমিতির, রাঙামাটি জেলা কমিটির সভাপতি, গুনেন্দ্র বিকাশ চাকমা।
সমাবেশ শেষে জিমনেসিয়াম মাঠ থেকে র‌্যালি বের হয়ে বনরূপা বাজার প্রদক্ষিণ করে তার আবার জিমনেসিয়াম মাঠে গিয়ে শেষ হয়।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কাপ্তাইয়ে করোনা সংক্রমণ কমছে

প্রশাসনের কঠোর নজরদারি এবং থানা পুলিশের তৎপরতায় রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে করোনা সংক্রমন হার কমছে। কাপ্তাই উপজেলা …

Leave a Reply