নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » চার উপজেলা নির্বাচন নিয়ে চার ইউএনও যা বললেন…

চার উপজেলা নির্বাচন নিয়ে চার ইউএনও যা বললেন…

pic-20_61678রাঙামাটির চার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পর্যাপ্ত সংখ্যক আইনশৃংখলা বাহিনী নিয়োজিত করা হয়েছে। চার উপজেলার মধ্যে রাঙামাটি সদর,রাজস্থলী,লংগদু ও বিলাইছড়ি উপজেলায় সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন ও এলাকার আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য পুলিশ,বিজিবি,সেনাবাহিনী,নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন।
এই প্রসঙ্গে রাঙামাটি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার রুমানা রহমান শম্পা বলেন,রাঙামাটির ঝুকিপূর্র্ণ প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ৫ জন করে পুলিশ,কম ঝুকিপূর্র্ণ কেন্দ্রগুলোতে ৪ জন করে পুলিশ,১২ জন করে আনসার সদস্য নিয়োজিত থাকবে ।এছাড়া পানিপথে ২টি,স্থল পথে ৬টি পুলিশের মোবাইল টিম,৭ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট,১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট,র‌্যাব-৭ এর টিম ও বিজিবির ১৬ টি ষ্ট্রাইকিং ফোর্স সার্বক্ষনিকভাবে দায়িত্ব পালন করবে।
বিলাইছড়ি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার নুরুল ইসলাম জানান,বিলাইছড়ি উপজেলায় মোট ৯ টি ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্র আছে। ঝুকিপূর্ণ প্রতিটি কেন্দ্রে ৪ জন করে পুলিশ সদস্য ও বাকী ২ টি কেন্দ্রে ৩ জন করে ৪২ জন পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করবে।এছাড়াও বিজিবির ৬১ জন সদস্য, ৩ টি ষ্ট্রাইকিং ফোর্স ও সেনাবাহিনী দায়িত্ব পালন করবে ।

রাজস্থলী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার ছাদেকুর রহমান বলেন,রাজস্থলী উপজেলায় ১৪ টি ভোট কেন্দ্রকে ঝুকিপুর্ন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আইনশৃংখলা রক্ষার দায়িত্বে ২০১ জন পুলিশ সদস্য, ১৬৮ জন আনসার সদস্য, ২ প্লাটুন বিজিবি ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবে।

লংগদু উপজেলার সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: মফিজুল ইসলাম জানিয়েছেন, লংগদুতে ৬ টির মতো ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র রয়েছে। তিনি জানিয়েছেন লংগদুর ১১ টি ভোট কেন্দ্রে সেনাবাহিনী,বিজিবি নিয়োজিত থাকবেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বেইলি সেতু ভেঙে রাঙামাটি-বান্দরবান সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় রাঙামাটি-বান্দরবান প্রধান সড়কের সিনামা হল এলাকার বেইলি সেতু ভেঙে পাথর বোঝাই ট্রাক …

Leave a Reply