গুইমারা কলেজের পাশে দাঁড়ালেন পার্বত্যপ্রতিমন্ত্রী বীরবাহাদুর

guimaraসরকারি চাকুরীজীবিরা সকাল ১০ টায় অফিসে আসবেন, আর ৪টায় বাড়িতে ফিরে যাবেন এবং মাস শেষে বেতন নিবেন শুধুমাত্র তাই একজন মানুষের জীবন হতে পারে না। পাহাড়ের মানুষের নিরাপত্তা দিতে এসে নিজের দায়িত্বের বাইরে গুইমারা কলেজ প্রতিষ্ঠা করে গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তোফায়েল আহামেদ প্রমাণ করলেন যে, সরকারী চাকুরীর বাইরেও প্রত্যেকটি মানুষের সামাজিক দায়বদ্ধতা ও দেশপ্রেম আছে। গুইমারা রিজিযন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তোফায়েল আহামেদকে তার এ মহতী কাজের জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বান্দরবান থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈ সিং এমপি বলেন, গুইমারা কলেজ এ অঞ্চলের শিক্ষার প্রসারে আলোকবর্তিকা হয়ে বেঁচে থাকবে। আর এ কলেজ যতদিন তাকবে ততোদিনই এ অঞ্চলের মানুষের হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তোফায়েল আহামেদ।

তিনি গতকাল গুইমারা কলেজের নিজস্ব ক্যাম্পাসে একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। গুইমারা কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও সিন্ধুকছড়ি জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল রাব্বি আহসান‘র সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, গুইমারা রিজিযন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল তোফায়েল আহামেদ পিএসসি, গুইমারা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল মো: আকরামুল হক এসপিপি, পিএসসি ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন গুইমারা কলেজের অধ্যক্ষ মো: নাজিম উদ্দিন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষাকে জাতীয়করণ করার পাশাপাশি সদ্য জন্ম নেয়া শিশুর শিক্ষার অধিকারকে সংবিধানে অন্তর্ভূক্ত করেছিলেন উল্লেখ করে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বান্দরবান থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈ সিং এমপি বলেন, তারই ধারাবাহিকতায় তার সুযোগ্য কন্যা দেশনেত্রী শেখ হাসিনা দেশ গড়ার অঙ্গিকারের কেন্দ্র বিন্দুতে স্থান দিয়েছেন শিক্ষাকে। গুনগত ও জনগনের প্রত্যাশিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বর্তমান সরকারের আমলেই জাতীয় শিক্ষা নীতি প্রনয়ণ করা হয়েছে।

দেশের প্রাথমিক শিক্ষাকে সরকারী করণের পাশাপাশি সমাজের অর্ধাঙ্গ মেয়েদের শিক্ষাকে অবৈতনিক করা হয়েছে। প্রাথমিক থেকে শুরু করে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরণ করা সরকারের উদার শিক্ষানীতির আরো একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। পার্বত্য অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার পথ সুগম করার জন্য দেশনেত্রী শেখ হাসিনা এখানে একটি মেডিকেল কলেজ, একটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, একটি পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, সড়ক ও জনপথ বিবাগের নির্বাহী প্রকৌশলী এ এস এম ফারুক, মাটিরাঙ্গার সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইমরুল কায়েস, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: শামছুল হকসহ সরকারী পদস্থ কর্মকর্তা ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

গুইমারা কলেজের উন্নয়নের জন্য ১০০ মে.টন খাদ্য-শষ্য বরাদ্ধের ঘোষনা দিয়ে বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানে পক্ষ থেকে প্রদত্ত তহবিল সংগ্রহ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বান্দরবান থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর উশৈ সিং এমপি। পরে তিনি অন্যান্যদের সাথে নিয়ে কলেজ চত্বরে ক্রিসমাস গাছের চারা রোপন করেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কারাতে ফেডারেশনের ব্ল্যাক বেল্ট প্রাপ্তদের সংবর্ধনা

বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন হতে ২০২১ সালে ব্ল্যাক বেল্ট বিজয়ী রাঙামাটির কারাতে খেলোয়াড়দের সংবধর্না দিয়েছে রাঙামাটি …

Leave a Reply