নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » খাগড়াছড়িতে সড়ক দূর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য নিহত,আহত ১৭

খাগড়াছড়িতে সড়ক দূর্ঘটনায় পুলিশ সদস্য নিহত,আহত ১৭

pic-2

জেলা সদরের আলুটিলা নামক এলাকায় পুলিশবাহী একটি বাস উল্টে আবু বক্কর নামে এক পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ১৭ জন। আহতদের তাৎক্ষনিক উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। এদিকে আহতদের মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় ৫ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এছাড়া ৪ জনকে খাগড়াছড়ির সেনা হাসপাতালে পাঠানো হয়। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এই দূর্ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।
খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার শেখ মিজানুর রহমান জানান, কুমিল্লায় জরুরী দায়িত্ব পালন শেষে ৫০ জন পুলিশ সদস্য দুটি রিকুইজিশন করা বাসে করে খাগড়াছড়ির ফিরছিলেন। পথে একটি বাসের নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পাশের খাদে পড়ে গেলে এক পুলিশ সদস্য নিহত হয়। ঐ বাসে থাকা সব পুলিশ সদস্য কম বেশি আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশংকাজনক।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় কুমিল্লা থেকে দায়িত্ব পালন শেষে দুটি বাসে করে পুলিশ সদস্যরা খাগড়াছড়ি আসছিল। পথে আলুটিলা পাহাড় উঠার পথে ঢাকা মেট্রো ৭১-১২৮৭ বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পাশ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। এ সময় পিছনে থাকা অন্য একটি বাসের পুলিশ সদস্যরা মিলে তাদের উদ্ধার তৎপরতা চালায়। ঘটনার খবর পাওয়ার পর খাগড়াছড়ি থেকে অন্য পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতায় অংশ নিয়ে আহতদের খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

এদিকে হাসপাতাল আনার পথে কনস্টেবল আবু বক্কর মারা যান। তিনি মাত্র পুলিশ বাহিনীতে যোগ দিয়ে ২৯ দিন দ্বায়িত্ব পালন করতে পেরেছেন বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। দূর্ঘটনায় আহতরা হলেন, কনস্টেবল সাইফুর রহমান সাগর(২২), মোঃ সজীব ভূইয়া(২০),রানা দাশ(১৮), মোঃ জিলানী(২২), মোঃ শাহ আলম(৩৫), আরাফাত হোসেন(১৯), সাব্বির আহম্মেদ(২১), মোঃ মনিরুল(২২), সাদ্দাম হোসেন(২২), হাবিবুর রহমান, মোঃ হাসান, মোঃ জাকির, রবিউল ইসলাম, শৈলেন, মনির, হারুন, তাজুল ইসলাম ও মোঃ জিলানী।

এদের মধ্যে হাবিবুর রহমান, মোঃ হাসান, মোঃ জাকির, রবিউল ইসলাম, শৈলেনকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া কনস্টেবল মনির, হারুন, তাজুল ইসলাম ও জিলানীকে খাগড়াছড়ির সেনা রিজিয়নের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে আহত পুলিশ কনেস্টেবল সাদ্দাম হোসেন জানান, কুমিল্লা থেকে ফেরার পথে আলুটিলা পাহাড় উঠার সময় ব্রেক ফেইল করে। বিষয়টি আঁচ করতে পেরে গাড়ীতে থাকা পুলিশ সদস্যরা হৈচৈ করতে থাকে। এ সময় সবাই দরজা এবং জানালা দিয়ে লাফ দিয়ে বের হওয়ার চেষ্টা চালায়। কিন্তু গাড়ীর গতি বেশি থাকায় কেউ লাফ দিতে পারেনি। পরে আলুটিলা পাহাড় নামার সময় অন্য পুলিশ সদস্যদের বহনকারী আরেকটি বাসকে ধাক্কা দিলে কিছুটা গতি কমতেই অনেকে গাড়ী থেকে লাফিয়ে পড়ে। এসময় গাড়ী থেকে আমিও লাফিয়ে পড়ি।
আহত অন্য পুলিশ সদস্য হারুনর রশিদ জানান, আমাদের গাড়ীটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে সামনে পুলিশ বহনকারী আরেকটি গাড়ীকে ধাক্কা দেয়। তারপর সামনের গাড়ীটিকে পাশ কাটিয়ে আরেকটু সামনে যেতেই উল্টে পড়ে যায়। পরে পুলিশ সদস্যরা আমাদের উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

খাগড়াছড়ির সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক সঞ্জীব ত্রিপুরা জানান, চট্টগ্রামে স্থানান্তর করা ৫ জনের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশংকাজনক। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কয়েকজনকে পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে। আহতরা সবাই বুকে এবং মাথায় মারাত্মক আঘাত পেয়েছে।

এদিকে আহতদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার কাজী শামছুল ইসাম, জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ করিম, পৌর মেয়র রফিকুল আলমসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।

khagrachari-pic-1khagrachari-pic-2khagrachari-pic5

pic-5pic-3

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লকডাউনে ফাঁকা খাগড়াছড়ি, বাড়ছে শনাক্ত

সারা দেশের মতো দ্বিতীয় দফায় সরকারের ঘোষিত লকডাউন চলছে পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়িতে। প্রথম দফার লকডাউন …

Leave a Reply