নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » খাগড়াছড়িতে আদিবাসী দিবসে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

খাগড়াছড়িতে আদিবাসী দিবসে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

খাগড়াছড়িতে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে আর্ন্তজাতিক আদিবাসী দিবস ২০১৯। শুক্রবার সকালে শহরের গোলাবাড়ি এলাকা থেকে বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম পার্বত্য চট্টগ্রাম ‘ক’ অঞ্চলের উদ্যোগে একটি র‌্যালি বের করা হয়। এতে অংশ নেন সংগঠনটির সমর্থিত নেতাকর্মীরা অংশ নেন। পরে পুরাতন জীপ স্টেশনে এসে মানববন্ধন করেন তারা।

এসময় বক্তারা আদিবাসী ভাষা চর্চা ও সংরক্ষণে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে বলেন, তাদের ভূমি অধিকার ও সংবিধানে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি জানানো হয়।

কর্মসূচিতে বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরাম পার্বত্য চট্টগ্রাম ‘ক’ অঞ্চলের সভাপতি চাইথোয়াই মারমা, মারমা স্টুডেন্টস কাউন্সিলের জেলা সভাপতি ক্যউপ্রু চাই মারমা, ত্রিপুরা স্টুডেন্টস ফোরামের কেন্দ্রীয় সম্পাদক নক্ষত্র ত্রিপুরা বক্তব্য রাখেন।

অপরদিকে, ভাষা সংস্কৃতি তথা জাতিসত্তাসমূহের অস্তিত্ব সংরক্ষণের দাবি জানিয়ে র‌্যালি ও আলোচনা সভা করেছে পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক। সকালে শহরে মধুপুর বাজার থেকে র‌্যালি বের করে শহর প্রদক্ষিণ করেছে। পরে মারমা সংসদ হল রুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) এর কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও প্রচার সম্পাদক মিটন চাকমার সভাপতিত্বে আলোচনায় বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) গ্রুপের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বিমল কান্তি চাকমা প্রমুখ।

অপরদিকে, আদিবাসী শব্দের ব্যবহার ও অসাংবিধানিক আদিবাসী দিবস পালনের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে পার্বত্য বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদ এবং পার্বত্য অধিকার ফোরাম। দুপুরে পৃথক পৃথকভাবে এ কর্মসূচি পালন করে তারা।

বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা শহরের শাপলা চত্ত্বর এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে শেষে পুনরায় একই স্থানে ফিরে এসে সমাবেশ করে। সমাবেশ থেকে বক্তারা আদিবাসী দিবসের বিরোধিতা করে বলেন, বাংলাদেশে কোন আদিবাসী নেই। বাংলাদেশে বাঙালিরাই আদিবাসী উল্লেখ করে বলেন, দিবসটি পালনের নামে পার্বত্য চট্টগ্রামে একটি কু-চক্রী মহল গভীর ষড়যন্ত্র করছে। কু-চক্রী মহলটি পার্বত্য চট্টগ্রামে নানাভাবে এখানকার অংশীজন বাঙালিদের উপর নিপীড়ন নির্যাতন চালাচ্ছে। হত্যা, গুম খুন ও চাঁদাবাজির মাধ্যমে অশান্ত করে তুলছে পাহাড়ের পরিবেশ। আদিবাসী স্বীকৃতি সংক্রান্ত সকল অপপ্রচার বন্ধে সরকারকে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার দাবী জানানো হয় কর্মসূচি থেকে। ভবিষ্যতে দিবসটি পালনের নামে কোন ধরণের ষড়যন্ত্র করলে কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে তা প্রতিহত করা হবে হুশিয়ারী দেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সংগঠনটির কেন্দ্রীয় আহবায়ক আব্দুল মজিদ, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদ উল্লাহ আসাদ প্রমুখ।

অপরদিকে, একই দাবিতে নারিকেল বাগান এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনের করে পার্বত্য অধিকার ফোরাম।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রামগড়ে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি

খাগড়াছড়ির রামগড়ে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। চুরি, ডাকাতি, ধর্ষণসহ নানা অপকর্মে লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। …

Leave a Reply