নীড় পাতা » ব্রেকিং » কাপ্তাই হ্রদে বড় মাছের উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ

উৎপাদনশীলতা দিবসের সভায় জেলা প্রশাসক

কাপ্তাই হ্রদে বড় মাছের উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ

‘বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় উৎপাদনশীলতা’- এই প্রতিপাদ্যে পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে পালিত হয়েছে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে বুধবার সকালে রাঙামাটি পৌরসভা চত্বর থেকে র‌্যালি শুরু হয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম শফি কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শারমিন আলম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক শাহ নেওয়াজ, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক হোসনে আরা বেগম, রাঙামাটি মহিলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মনোয়ারা বেগম প্রমুখ।

সভায় রাঙামাটি মহিলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মনোয়ারা বেগম বলেন, সারাদেশের ন্যায় রাঙামাটিতে অনেক নারী উদ্যোক্তা রয়েছে। কিন্তু সুযোগের অভাবে তারা তাদের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে পারছেন না। এ সকল নারী উদ্যোক্তাদের জন্য আলাদা একটি জোন করে দেয়ার দাবি জানাচ্ছি। যেখানে সকল নারী উদ্যোক্তারা তাদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে বসতে পারবে। পর্যটকরা এসে পণ্য কিনতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, মূলধনের অভাবে আমরা কাজ করতে পারিনা, তাই ঋণ ব্যবস্থা আরও সহজ করাও দাবি জানাই। তাহলে রাঙামাটির প্রায় ২শ’ নারী উদ্যোক্তা স্বাবলম্বী হতে পারবে, দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক শাহ নেওয়াজ বলেন, রাঙামাটিতে এখন সহজে বহনযোগ্য ও অধিক লাভজনক কৃষি পণ্য উৎপাদনের জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। যেমন, দারুচিনি, আলু বোখরা, এলাচি ইত্যাদি মসলা চাষ করার জন্য কৃষকদের অনুপ্রাণিত করছি।

তিনি আরও বলেন, মসলা চাষের ওপর অনেকেই কাজ শুরু করেছে। রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড কৃষি বিভাগের মধ্যে অন্যতম। তবে আমি সকল প্রতিষ্ঠানের প্রতি অনুরোধ করবো, যাতে আমরা সকলে সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজটা করতে পারি। সেদিকে নজর রাখতে হবে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ বলেন, ২০১১ সালে থেকে দিবসটি পালন শুরু করে সরকার। উৎপাদনে প্রতিযোগিতা আনাই ছিল প্রধান লক্ষ্য। সে লক্ষ্যকে সামনে রেখে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। আমাদের সকল ক্ষেত্রে উৎপাদশীলতা বেড়েছে। সাথে সাথে গুনগত মানের দিকে নজর দিতে হবে, যাতে আমাদের দেশে উৎপাদিত পণ্য বিদেশে রফতানি করতে পারি।

এসময় কাপ্তাই হ্রদে বড় মাছের উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দেন জেলা প্রশাসক। বলেন, কাপ্তাই হ্রদে কার্প জাতীয় মাছের উৎপাদন হতাশাজনক। এত বড় হ্রদে বড় মাছ নেই বললেই চলে। আমাদের বড় মাছ উৎপাদন বাড়াতে কাজ করতে হবে। জেলা বিসিক শিল্পনগরী বিষয়ে ডিসি বলেন, রাঙামাটির এই নগরীকে আরও উৎপাদনবান্ধব করতে হবে। এখানে অনেকেই প্লট নিয়েছেন। কিন্তু শিল্প কারখানা করছেন না, ফলে এখান থেকে উৎপাদনও হচ্ছে না। এসময় বিসিকের ঋণ যাতে প্রকৃত উদ্যোক্তারা পায় সেদিকে নজর দিতে বিসিক কর্মকর্তাদের অনুরোধ করেন তিনি।

সভার সভাপতি ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম শফি কামাল বলেন, বাংলাদেশ ইনভেস্টমেন্ট ডেভলাপমেন্ট অথরিটি রাঙামাটিকে অফিস নিয়েছে। তারা উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করবেন। দুই মাস মেয়াদি এই কোর্সে দুই বছরে ১২টি ব্যাচকে প্রশিক্ষণ প্রদান করে দক্ষ করে তোলা হবে। আগ্রহীরা আবেদন করতে পারবেন। গত মঙ্গলবার প্রথম ব্যাচের প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। আমরা আশা করি, এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এ অঞ্চলের মানুষ দক্ষ হয়ে নিজেদের মেধা দিয়ে দেশের উৎপাদনশীলতা বাড়াতে পারবেন। উক্ত ব্যাচে ২৫ জন করে প্রশিক্ষনার্থীকে প্রশিক্ষিত করে তোলা হবে। এখানে শুধু প্রশিক্ষণ নয়, উদ্যোক্তা হতে হলে কী কী প্রয়োজন, উৎপাদনের উপকরণ তথা কাচা মাল, ঋণসহ অন্যান্য সুবিধা কোথায় পাওয়া যাবে সেক্ষেত্র গুলোর সাথেও পরিচয় করিয়ে দেয়া হবে।

শফি কামাল বলেন, সরকারের মূল লক্ষ্য হলো, দেশের জনগণ যাতে চাকুরি না খুঁজে নিজেই চাকুরি দিয়ে দেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, অতপর…

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় মুবিনা আক্তার নয়ন (১৬) নামের এক তরুনী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে …

Leave a Reply