নীড় পাতা » করোনাভাইরাস আপডেট » কাপ্তাইয়ে করোনা উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু

কাপ্তাইয়ে করোনা উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে থুইঅং প্রু মারমা (২৬) নামের এক স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

রোববার বিকালে তার মৃত্যু হয়। সে উপজেলার ২ নং রাইখালী ইউনিয়নের পূর্ব কোদালা গ্রামের উথোয়াই প্রু মারমা প্রকাশ সেদা মারমার ছেলে। থুইঅং চট্টগ্রামের রয়্যাল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

রয়্যাল হাসপাতালের নার্স ইনচার্জ আশীষ দাশ জানিয়েছেন, সে ১০-১২ দিন আগে থেকে জ্বর নিয়ে কষ্ট পাচ্ছে। কিন্তু সেটাকে সে গুরুত্ব না দিলে গত সাতদিন আগে হাসপাতাল থেকে ছুটি নেয়। পরে সে অতিরিক্ত অসুস্থ হয়ে গেলে তাকে শহরে থেকে সেবা নিতে বললেও সে অসুস্থ হয়ে ঘরে চলে যায় গত দুই দিন আগে। যার পরিপ্রেক্ষিতে তার মৃত্যু হল।

চন্দ্রঘোনা থানার ওসি আশরাফ উদ্দিন জানান, ওই যুবক গত ২ দিন পূর্বে চট্টগ্রাম থেকে নিজ বাড়িতে আসে। তার জ্বর ছিলো।

এদিকে ২নং রাইখালী ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এনামুল হক জানান, এ যুবক ২ দিন আগে শহর হতে তার গ্রামের বাড়িতে আসে। প্রতিবেশিদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, রোববার বিকেল পাঁচটার দিকে সে মারা যায়।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশ্রাফ আহমেদ রাসেল এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাসুদ আহমেদ চৌধুরী জানিয়েছেন, উপজেলা হাসপাতাল হতে ডাক্তার এবং ল্যাব টেকনিশিয়ানরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃত যুবকের নমুনা নিতে গিয়েছেন। নমুনা পরীক্ষার পর নিশ্চিত হওয়া যাবে তার করোনা ছিল কি-না।

ইউএনও জানান, উপজেলা সদর হাসপাতাল হতে পিপিই নিয়ে যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি মেনে এই যুবকের মরদেহ সৎকার করা হবে এবং তার পরিবারের সদস্যদেরকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে।

এদিকে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে চন্দ্রঘোনা থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মিশন বিশ্বাস এবং রাইখালী ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এনামুল হকসহ কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসন এবং স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন মৃত স্বাস্থ্যকর্মীর এলাকায় যেতে রওনা দিয়েছেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply