নীড় পাতা » পাহাড়ের রাজনীতি » কাদের মোল্লার ফাঁসিতে খুশি রাঙামাটিবাসি

কাদের মোল্লার ফাঁসিতে খুশি রাঙামাটিবাসি

piccccমহান মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত জামায়াত নেতা কাদের মোল্লার মৃত্যুদন্ডের রায় কার্যকরের পর রাঙামাটির বিভিন্ন মহল সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাঙামাটির বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। স্বাধীনতার ৪২ বছর পর প্রকৃত যুদ্ধাপরাধীর বিচারের রায় কার্যকর করতে পারায় জাতির কলঙ্ক মোচন শুরু হলো এবং এটি ‘মুক্তিযুদ্ধের বিজয়’ বলে তারা উল্লেখ করেছেন শহরের বিশিষ্টজনরা। তবে একই সাথে অন্যান্য যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ধারাবাহিকতা রক্ষার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও স্থানীয় সরকার পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান গৌতম দেওয়ান জানান, নিঃসন্দেহে এটি একটি প্রশংসনীয় কাজ। মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতাকারীদের জাতি এতোদিন পর সাজা দিতে পেরেছে। এতোদিন বিবেকের কাছে জাতির লজ্জা ও দায়বদ্ধতা ছিলো। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের দীর্ঘ ৪২বছর পর দেরিতে হলেও আমরা সেই দায়বদ্ধতা থেকে মুক্তি পেলাম। আশা করছি সরকার বিচারের ধারাবাহিকতা রক্ষা করবে।

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের স্থানীয় সংগঠক ও রাঙামাটি জেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির আহ্বায়ক সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে বলেন, অবশ্যই জাতির জন্য গৌরবের একটি দিন। অপরাধ করেও যে কেউ পার পাবে না, এই বিচারের মাধ্যমে তাই প্রমাণিত হলো। দীর্ঘ ৪২বছর পর একজন প্রকৃত যুদ্ধাপরাধীকে শাস্তি কার্যকর করতে পারাটা বড় একটি অর্জন। এটি মুক্তিযুদ্ধের বিজয়। তিনি বিচারের ধারাবাহিকতা রক্ষার আহ্বান জানান।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি মুছা মাতব্বর জানান, ৪২বছর পর আওয়ামী লীগ সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের সম্মুখীন করার মাধ্যমে দেশকে কলঙ্ক মোচনের অধ্যায় শুরু করেছে। এরই প্রেক্ষিতে শেখ হাসিনার সরকার কাদের মোল্লার মৃত্যুদন্ডাদেশ কার্যকর করেছে। মহাজোট সরকারের নির্বাচনী অঙ্গিকার পূরণ শুরু হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুনরায় আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে বাকী যুদ্ধাপরাধীদেরও রায় কার্যকর করা হবে।

মুক্তিযুদ্ধ সংসদ রাঙামাটি জেলা ইউনিটের ডেপুটি কমান্ডার ইকবাল হোসেন চৌধুরী বলেন, চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের রায় কার্যকরের উদ্যোগ গ্রহণ করায় আমরা সন্তোষ প্রকাশ করছি। একইসাথে ধন্যবাদ জানাচ্ছি শেখ হাসিনা সরকারকে যারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের রায় কার্যকর করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তিনি অন্যান্য যুদ্ধাপরাধীদের রায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানান।

এদিকে কাদের মোল্লার ফাঁসির পর শুক্রবার বিকেলে রাঙামাটি শহরে আনন্দ মিছিল করেছে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড। পৌরসভার সামনে থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে ১০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

খাদ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার  রাঙামাটির লংগদু …

Leave a Reply