নীড় পাতা » ব্রেকিং » কাউখালীতে ‘ডাকাতির মূলহোতা’ ভিক্ষুসহ আটক ৪

কাউখালীতে ‘ডাকাতির মূলহোতা’ ভিক্ষুসহ আটক ৪

রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার কলমপতি ইউনিয়নের দুর্গম মাঝেরপাড়া (নাইল্যাছড়ি) এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ৩ জন আটক ও তাদের তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনার সঙ্গে জড়িত আরও এক বৌদ্ধ ধর্মীয় ভিক্ষুকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কলমপতি ইউনিয়নের উত্তর মাঝের পাড়া (নাইল্যাছড়ি) এলাকার থুচাইমং মারমার বাড়িতে সোমবার ভোর রাতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে বাড়ির লোকজন টের পেয়ে চিৎকার করলে ৩ জন ডাকাত পালিয়ে যায়। পরে আশে পাশের স্থানীয়দের সহযোগিতায় অপর ৩ জন ডাকাতকে ১টি দেশীয় তৈরি একনালা বন্দুক ও তাদের ব্যবহৃত ১টি বাজাজ মোটর-সাইকেলসহ নাইল্যাছড়ি পুলিশ ক্যাম্পের সদস্য আটক করেন।

আটককৃতরা হলো সাইমন মারমা (২১) পিতা-মিবাই মারমা, মংসাচিং মারমা (২১) পিতা-মংনুশি মারমা ও মংমং মারমা(২০) পিতা-অং প্রু সাই মারমা। সকলেই উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের হারাঙ্গী পাড়া এলাকার বাসিন্দা। এছাড়া একই ঘটনায় উপজেলার কলমপতি ইউনিয়নের মাঝেরপাড়া দইপা বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু উ সুমনা (২৪) কেও আটক করা হয়। আটক ভিক্ষু একই ইউনিয়নের বড়ইছড়ি এলাকার ক্যজাইলা মার্মার ছেলে।

কাউখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদ উল্ল্যাহ জানান, ভোররাতে ঘটনার খবর জানতে পেরে এসআই মো. সিরাজুল ইসলামের নের্তৃত্বে কাউখালী থানা পুলিশের একটিদল ঘটনাস্থলে গিয়ে আটককৃতদের কাউখালী থানায় নিয়ে আসে। আটককৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনার মূল হোতা মাঝের পাড়া দইপা বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষুকেও আটক করা হয়। ভিক্ষুর সঙ্গে ভিকটিমের ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরেই এঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ওসি জানান, এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে কাউখালী থানায় ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুটি মামলা করেছে। আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালত তাদের জেলে প্রেরণ করেন। প্রকৃত ঘটনা জানতে আটককৃতদের রিমান্ড চাওয়া হবে। পলাতক অপর আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা চলছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে এক দিনেই ১১ জনের করোনা শনাক্ত

শীতের আবহে হঠাৎ করেই পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি জেলায় করোনা সংক্রমণে উল্লম্ফন দেখা দিয়েছে। বিগত কয়েকদিনের …

Leave a Reply