নীড় পাতা » ব্রেকিং » কাউখালীতে জেএসএস’র ২ সমর্থক অপহৃত !

কাউখালীতে জেএসএস’র ২ সমর্থক অপহৃত !

কাউখালীর হারাঙ্গী রিফিউজি পাড়া থেকে জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)’র দুই কর্মীকে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার (২ ও ৩ জুন) পর্যাক্রমে সুগত চাকমা (৪৫), নলিন্দু কুমার চাকমাকে (৬৫) অপহরণের অভিযোগ করেছে জেএসএস কাউখালী উপজেলার শাখার সভাপতি সুভাষ চাকমা। তারা দু’জনই পিতা-পুত্র। জেএসএস এঘটনার জন্য প্রতিপক্ষ ইউপিডিএফকে দায়ী করলেও ইউপিডিএফ তা অস্বীকার করেছে।
কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল করিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, এটি অপহরণ নয় অভিযুক্ত দুজন ইউপিডিএফ’র সাবেক কর্মী ছিল। গতকাল বিকেল থেকে এ অপহরনের ঘটনা এলাকায় জানা জানি হতে থাকলে দূর্গম এলাকার ভোটারদের মধ্যে উদ্বেগ উৎকন্ঠা দেখা গেছে বলে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে।

কাউখালীর ঘাগড়া থেকে জেএসএস সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী শান্তিমনি চাকমা অভিযোগ করেন, উপজেলার হারাঙ্গীপাড়া গ্রামের সুগত চাকমা (৪৫) আমার প্রতীক ঘোড়া মার্কার সমর্থনে কাজ করে আসছিল। ২ জুন দুপুর ২টায় ইউপিডিএফ’র শসস্ত্র সদস্যরা সুগত চাকমাকে তার বাড়ী থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। একই অজুহাতে শুক্রবার (৩ জুন) সকাল ১০টায় তার বৃদ্ধ বাবা নলিন্দু কুমার চাকমাকে একই কায়দায় অপহরণ করে নিয়ে যায়।

জেএসএস কাউখালী উপজেলা শাখার সভাপতি সুভাষ চাকমা জানান, নির্বাচনের পূর্ব মূহুর্তে ইউপিডিএফ সাধারণ ভোটারদের মাঝে ভয়ভীতি সৃষ্টি করতে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।

অপরদিকে ইউপিডিএফ কাউখালী ইউনিটের সমন্বয়কারী রাহেল চাকমা দাবী করেন, তারা দুজন আমাদের কর্মী ছিল। তাদেরকে অপহরণ করা হয়নি। নির্বাচনে আমাদের পক্ষে কাজ করতে তারা দুজন স্বেচ্ছায় আমাদের সাথে যোগ দিয়েছে। জেএসএস নির্বাচনের ফলাফল তাদের নিয়ন্ত্রণে নিতে এধরণের অপপ্রচার চালাচ্ছে।

রাত সাড়ে দশটায় এ রির্পোট লেখার সময় কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল করিম জানিয়েছেন, অপহরনের বিষয়ে এখনো পর্যন্ত থানায় কোন পক্ষই অভিযোগ দেয়নি।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

স্বাস্থ্য বিভাগকে সুরক্ষা সামগ্রী দিলো রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্ট

নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রাঙামাটির ১২টি সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রসমূহে স্বাস্থ্য …

Leave a Reply