নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » কাউখালিতে ছাত্রলীগ নেতার কান্ড !

কাউখালিতে ছাত্রলীগ নেতার কান্ড !

KawkhaliUpazilaRangamati-mapনবম শ্রেনী পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে একবছর আগে তুলে নিয়ে অশ্লীল ছবি তুলে ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার পর এবার খোদ ছাত্রীটিকে আবার তুলে নিতে গিয়ে জনতার প্রতিরোধে ব্যর্থ হয়েছে এক ছাত্রলীগ নেতা।

রাঙামাটি কাউখালি উপজেলার কলমপতি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শিহাবউদ্দিন ও তার কয়েকজন সহযোগি একই এলাকার নবম শ্রেণী পড়–য়া স্কুল ছাত্রীটি শনিবার সকালে স্কুল যাওয়ার পথে কলমপতি ইউনিয়নের সুগারমিল পূর্ব আদর্শগ্রাম এলাকায় পথ আটকায়। এসময় তারা মেয়েটির নাকে চেতনানাশক লাগিয়ে তাকে তুলে নেয়ার চেষ্টা করলে মেয়েটির চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে বখাটেরে তাদের উপরও চড়াও হয়। এসময় মেয়েটির বাবাও তাদের হাতে লাঞ্চিত হন।
এসময় উত্তেজিত এলাকাবাসী বখাটেদের ধাওয়া করে। পরে বেতবুনিয়া ফাঁড়ির পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। এই ব্যাপারে মেয়েটির মা কাউখালি থানায় ছাত্রলীগ সভাপতি শিহাবউদ্দিন,তার ভাই কুতুবউদ্দিন এবং নুরুদ্দিনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

আদর্শগ্রাম এলাকার খোরশেদ মিস্ত্রি ছেলে কলমপতি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শিহাব উদ্দিনের নেতৃত্বে লায়েক, মাসুদ, মনির, ইব্রাহীম, নুরুদ্দিনসহ কয়েকজন বখাটে এই ঘটনায় নেতৃত্ব দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা।

ছাত্রীটির মা উসাটিং মারমা অভিযোগ করেছেন, শিহাব গত দুই বছর যাবৎ আমার মেয়েকে স্কুলে যাওয়ার পথে উত্যক্ত করে আসছে। এমনকি গত বছর আমার মেয়ে উঠিয়ে নিয়ে জোরপূর্বক বিতর্কিত ছবি তুলে ইন্টারনেট ও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়। এসব বিষয়ে আমরা উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের কাছে বিচার প্রার্থনা করলেও গত এক বছরেও এর কোন সুরাহা হয়নি। পরে আমার পরিবারের পক্ষ থেকে কাউখালী থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে স্থানীয় ভাবে মিমাংসার জন্য রাজনৈতিক চাপ থাকায় পুলিশও কোন ব্যবস্থা নেয়নি। মেয়ের মা আরো অভিযোগ করেন, শিহাবের নেতৃত্বে বখাটেরা যে কোন মূহুর্তে আমার মেয়ের বড়ধরণের ক্ষতি সাধন করতে পারে। সন্ত্রাসীরা তার পরিবারকে নিয়মিত হুমকি প্রদান করে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় আমি ও আমার পরিবার মারাত্মক নিরাপত্তহীনতায় ভূগছি।

কাউখালি থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল কান্তি বড়–য়া এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন,এই ঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে কাউখালি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ছেলেটি দীর্ঘদিন ধরে মেয়েটিকে বিরক্ত করে আসছে এবং এর আগেও একাধিক বিচার সালিশ হলেও ছেলেটির বখাটেপনা কমেনি বলে জানিয়ে তিনি বলেন,এই ব্যাপারে মামলা হয়েছে এবং সেই মোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে উদ্বুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এবং স্থানীয় মারমা ও বাঙালীদের মধ্যে যেনো এই ঘটনার নেতিবাচক প্রভাব না পড়ে সেই কারণে শনিবার বিকেলেই বেতবুনিয়ার এক জরুরী সমঝোতা সভা ডেকেছেন কাউখালি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য অংসুপ্রু চৌধুরী।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাঙামাটিতে করোনায় আরও এক নারীর মৃত্যু

রাঙামাটি শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার ভোররাতে শহরের চম্পকনগর আইসোলেশন …

Leave a Reply

%d bloggers like this: