নীড় পাতা » ব্রেকিং » এবার ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিনের অপসারণ চায় ছাত্রলীগ

এবার ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিনের অপসারণ চায় ছাত্রলীগ

গত ২৯ আগস্ট ছাত্রলীগের চার নেতার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করে রাঙামাটি সদর উপজেলার নারী ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম। এরপরেই তাকে সদর উপজেলা কৃষকলীগের পদ থেকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বহিষ্কার করা হয়। সর্বশেষ মঙ্গলবার সকালে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে নাসরিন ইসলামের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে উপজেলা নারী ভাইস চেয়ারম্যান থেকে অপসারণের দাবি জানানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত নাসরিন ইসলামকে সংবাদ সম্মেলনে ‘অনুপ্রবেশকারি’ বলে দাবি করেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা।

সংবাদ সম্মেলনে প্রকাশ চাকমা বলেন, নাসরিন আক্তার তার সংবাদ সম্মেলনে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এবং কতিপয় নেতাকর্মীর নাম জড়িয়ে মিথ্যা, বানোয়াট, মানহানিকর, বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য পরিবেশন করেছে যা দুঃখজনক। তিনি ব্যক্তিগতভাবে বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকা-ের কারণে এলাকার সামাজিক পরিবেশ কলুষিত করে তোলায় এলাকাবাসী তার ওপর ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে। আলোচিত এই বিষয়ের যাবতীয় ঘটনাবলী নেহায়েত একটি এলাকার সামাজিক পরিবেশ বিনষ্টকারী একটি ঘটনা মাত্র। ছাত্রজীবনে তিনি রাঙামাটি সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের সহছাত্রী বিষয়ক সম্পাদিকা হিসেবে নেতৃত্বে ছিলেন এবং জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) এর একজন সক্রিয় কর্মী।

প্রকাশ বলেন, তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশ ধ্যান ধারণা অন্তরে লালন না করে ক্ষমতার লিপ্সা নিয়ে আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশের প্রচেষ্টায় লিপ্ত আছেন যা তার কর্মকা-ে প্রতিফলিত হচ্ছে। তিনি তার সংবাদ সম্মেলনে সরাসরি রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগসহ অভিভাবক সংগঠন আওয়ামীলীগের কুৎসা রটনা করেছেন। যা যড়যন্ত্রমূলক ও উদ্দেশ্যে প্রণোদিত।

তিনি বলেন, ২৯ আগস্টের সংবাদ সম্মেলনে নাসরিন ইসলাম বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে ঢালাওভাবে সন্ত্রাসী সংগঠন উল্লেখ্য করে যে বক্তব্য দিয়েছেন আমরা রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে তার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। ছাত্রলীগকে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে গণমাধ্যমে যে সকল মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন সেটি তথ্য প্রযুক্তির আইনেরও সু-স্পষ্ট লঙ্ঘন। এছাড়াও তিনি ঘটনার পর থেকে নিজের মুঠোফোন থেকে নিজেকে পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতাকর্মী ও তাদের পরিবারকে হুমকি ধামকি প্রদান করে আসছে। তাই আমরা এই সংবাদ সম্মেলন থেকে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি চরমভাবে ক্ষুন্নকারী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলামকে ভাইস চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করে উক্ত পদে পুনঃনির্বাচন দেওয়ার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজনসহ আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান, সহ-সম্পাদক আনোয়ার হোসেন কায়সার, মোসলেহ উদ্দিন, রাঙামাটি সরকারি কলেজ শাখার সাবেক প্রচার সম্পাদক মেজবাহ উদ্দিন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

রাজস্থলীতে মাস্ক না পরলেই গুনতে হচ্ছে জরিমানা

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী মুখে মাস্ক না পরে ঘরের বাইরে আসায় বাজারে …

Leave a Reply