নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাইকে অপহরণের অভিযোগ

এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাইকে অপহরণের অভিযোগ

dighinala-(khagrachari)-picখাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার মেরুং ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনী প্রচারনার সময় তাঁর আপন ভাইসহ কয়েকজনকে অপহরণের অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র এক চেয়ারম্যান প্রার্থী। এ সংবাদ পেয়ে তাঁর পক্ষের কয়েকশ এলাকাবাসি প্রতিবাদ অপহৃতদের মুক্তির দাবীতে স্থানীয় বেতছড়ি সেনাক্যাম্পের সামনের সড়কে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। এ ঘটনা শুক্রবার বিকালে উপজেলার মেরুং ইউনিয়েনের চৌধুরী পাড়াতে।

শুক্রবার সন্ধায় দীঘিনালা-মেরুং সড়কের বেতছড়ি আর্মি সাবজোনে গিয়ে দেখা যায় কয়েকশ পাহাড়ি নারীপুরুষ সড়কে অবস্থান করে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। রুপায়ন চাকমা (৩৫), বোধিসত্ব চাকমা (৪০)সহ কয়েকজন জানায়, অপহৃত আনারস প্রতীকের লোকজনকে মুক্তি দেওয়া সহ অপহরণকারীদরে বিচার না হলে তারা অবস্থান করবে। সেখানে তারাক চন্দ্র চাকমা (৬০) অভিযোগ করে বলেন, ‘আমিও হেমব্রত চাকমার ঘোড়া প্রতীকের পক্ষ্যে নিবাচনী প্রচারনা চালাতে গিয়েছিলাম। চৌধুরী পাড়াতে গনসংযোগের সময় কয়েকজন পাহাড়ি সকলকে আটক করে নিয়ে যায়। সেসময় আমি গাড়ির যাত্রী বলে পরিচয় দিয়ে কোনমতে জীবন নিয়ে দ্রুত চলে আসি। বাকিদের কোথায় নিয়ে গেছে বলতে পারছিনা।’

হেমব্রত চাকমা অভিযোগ করে বলেন, ‘জেএসএস (এমএন লারমা) সমর্থীত লোচন দেওয়ানের জন্য জেএসএস কর্মীরা প্রতি এলাকায় আমার কর্মী সমর্থকদের হুমকি দিয়ে আসছিল। এমনকি কিছু দিন আগেও আমার ৭জন কর্মীকে অপহরণ করে শর্তের বিনিময়ে ২৪ ঘন্টা পর মুক্তি দেয়। আর আজ (শুক্রবার) প্রচারণার সময় আমার আপন ভাই পূর্নজীবনসহ গাড়ির সকলকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে শান্তির লোকেরা।’ এ সংবাদ পেয়ে তাঁদের মুক্তির তাঁর স্থানীয় সমর্থকেরা সড়কে অবস্থান করছে বলেও জানান তিনি।
অভিযুক্ত শান্তিলোচন দেওয়ান তাঁর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবী করে জানান, তিনি এসবের কিছুই জানেননা।
ঘটনাস্থলে দায়িত্ব পালনকারী পুলিশ কর্মকর্তা এসআই নজরুল ইসলাম এ সংবাদ লেখার সময় (রাত সাড়ে সাতটা) জানান, তখনো ঘোড়া প্রতীকের পক্ষের লোকজন সড়কে অবস্থান করছিল।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

স্বাস্থ্য বিভাগকে সুরক্ষা সামগ্রী দিলো রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্ট

নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে রাঙামাটির ১২টি সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রসমূহে স্বাস্থ্য …

Leave a Reply