নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » একবছরেও পূর্ণতা পায়নি প্রধানমন্ত্রীর সেই প্রকল্পগুলো !

একবছরেও পূর্ণতা পায়নি প্রধানমন্ত্রীর সেই প্রকল্পগুলো !

PM-opening-pic এক বছর আগে ২০১৩ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাঙামাটি সফরে এসেছিলেন। সেদিন তিনি সাজেকের রুইলুই পাড়া ভ্রমণ শেষে দুপুরে রাঙামাটি সার্কিট হাউজে নয়টি কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও উদ্বোধন করেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সফরের একবছরেও উদ্বোধনকৃত এইসব প্রকল্পের দশভাগ কাজও সম্পন্ন হয়নি। কিছু প্রকল্প এখনো শুরুই হয়নি। প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনকৃত এসব প্রকল্প কাজের অগ্রগতি না হওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাঙামাটিবাসি। তারা অতি সত্ত্বর প্রধানমন্ত্রী যেসব প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন যেসব কাজ দ্রুত শুরু করার তাগিদ দেন। এবং যেসব প্রকল্প চলমান সেসব কাজ দ্রুত শেষ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনকৃত প্রকল্পগুলো হলো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য উদ্বোধন, নতুন পর্যটন মোটেল উদ্বোধন, বরকল থানা ভবন উদ্বোধন, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন, পুরানবস্তি ও ঝুলুক্ক্যা পাহাড় সংযোগ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন, কাচালং নদীর ওপর মাইনীমুখ-গাঁথাছড়া সংযোগ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর ও আসামবস্তি ব্রাহ্মণটিলা সংযোগ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

এর মধ্যে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রয্ুিক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ ও আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনের পরও শুধু জায়গা পরিদর্শনের মধ্যেই গত একবছর অতিবাহিত হয়। মেডিকেল কলেজ ও প্রয্ুিক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এখনো জমি অধিগ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। অন্যদিকে কাচালং নদীর ওপর মাইনীমুখ-গাঁথাছড়া সংযোগ সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করা হলেও এই প্রকল্পের কোনো জমি অধিগ্রহণ করা হয়নি বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। পুরানবস্তি ও ঝুলুক্ক্যা পাহাড় সংযোগ সেতুর কাজ শুরু হলেও একবছরে মাত্র তিনটি পিলার স্থাপন ছাড়া আর কোন কাজ হয়নি । প্রধানমনন্ত্রী নতুন পর্যটন মোটেল উদ্বোধন করলেও বাস্তব অবস্থা হলো গত একবছরেও এর নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি,চালু করাও সম্ভব হয়নি। তবে পর্যটন কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, কাজটি প্রায় শেষের পথে এবং শীঘ্রই শুরু করা যাবে। উদ্বোধন হলেও একবছরেও শেষ হয়নি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য্যরে কাজ। তবে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার জানিয়েছেন,বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যের চতুর্দিকে রিটেইনিং ওয়াল, ফুট ব্রিজ নির্মাণও কাজ শেষ হওয়ার পথে রয়েছে। আসামবস্তি ব্রাহ্মণটিলা সংযোগ সেতুর নির্মাণ কাজ এখনো মাত্র পঞ্চাশ ভাগও সম্পন্ন হয়নি বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

রাঙামাটি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী যখনই প্রকল্পগুলো উদ্বোধন করেছিলো, তখনই আমরা বলেছি, এগুলো যাতে কমিটমেন্টের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থাকে। কিন্তু এক বছর পরেই আমরা দেখতে পেলাম এসব কমিটমেন্টের ‘সি’ও বাস্তবায়ন হয়নি। এর থেকে বোঝা যায় এই সরকার ফলক উন্মোচন ও কমিটমেন্টের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি মুছা মাতব্বর বলেন, প্রকল্পগুলো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মেডিকেল কলেজের জন্য রাঙামাটি মেডিকেল হাসপাতালে অফিসিয়াল কার্যক্রম চলছে। প্রযু্িক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সম্প্রতি সফর করা প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচটি ইমামের সাথে এসব প্রকল্প নিয়ে কথা হয়েছে। আশা করছি দ্রুত প্রকল্পগুলো শেষ হবে।

তবে রাঙামাটিবাসির প্রত্যাশা প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি প্রকল্পগুলো দ্রুত নির্মাণ কাজ শেষ করে আলোর পথ দেখবে। আর দ্বিতীয় মেয়াদে আবারো শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার ক্ষমতাসীন হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই সরকারের কাছে এই প্রত্যাশা আরো দ্বিগুন হয়েছে জেলাবাসির।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে দুর্যোগ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা

রাঙামাটির লংগদুতে উপজেলা পর্যায়ে ‘দুর্যোগবিষয়ক স্থায়ী আদেশাবলী (এসওডি)-২০১৯’ অবহিতকরণ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার লংগদু …

Leave a Reply