নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » একটি ‘গতিরোধক’ প্রয়োজন…

একটি ‘গতিরোধক’ প্রয়োজন…

khagrachari-pic-1খাগড়াছড়ির অন্যতম ব্যস্ততম সড়ক আদালত চত্বর এলাকা। যেখানে জেলা প্রশাসনের অফিস, সোনালী ব্যাংক, প্রেস ক্লাব, ডাকঘর, জেলা গণগ্রন্থাগার, জেলা বার এসোসিয়েশনের অফিস অবস্থিত। একটু দূরেই সদর থানা, পুলিশ সুপারের কার্যালয়, এবং সিভিল সার্জন অফিস। যার কারণে এই অফিস পাড়ায় সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত যানবাহনের ভীড় লেগেই থাকে।
তবে এগুলো ছাড়াও আরো দুটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্টানের অবস্থান রয়েছে এই এলাকায়। একটি নতুন কুঁড়ি ক্যান্টমেন্ট হাই স্কুল অপরটি খাগড়াছড়ি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়। আর ব্যস্ততম এই সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়ত ঝুকিঁ নিয়ে শত শত শিক্ষার্থী রাস্তা পারাপার হয়।
খাগড়াছড়ি নতুন কুঁড়ি ক্যান্টমেন্ট স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপাল রুশদিনা আকতার আকতার জাহান জানান,‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াতের সড়কে গতিরোধক বাঁধ থাকে কিন্তু । কিন্তু এখানে শুধু সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে একটি গতিরোধক বাঁধ । বিপরীত সড়কে কোন গতিরোধক বাঁধ নাই। শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের সুধিধার্থে খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাব এবং ডাকঘর সংলগ্ন এলাকায় একটি গতিরোধক বাঁধ খুবই প্রয়োজন।
খাগড়াছড়ি ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট মোঃ ইকবাল পারভেজ জানান, ‘রাস্তায় যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখার পাশাপাশি শিশুদের রাস্তা পারাপার করাটাও আমাদের দেখতে হয়। দ্রুত যানবাহন চলাচলের কারণে প্রায় দূর্ঘটনা হয় উল্লেখ করে বলেন খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবের সামনে একটি গতিরোধক বাঁধ থাকলে শিশুদের রাস্তা পারাপার করতে সুবিধা হবে।’
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষন করা হলে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মোঃ মাসুদ করিম বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে বলেন, অতি শিগ্রই একটি গতিরোধক বাঁধ তৈরির ব্যবস্থা নেয়া হবে।
যার কারণে সড়কে যানবাহন স্বাভাবিক রাখার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সড়ক পারাপারে ব্যস্ত সময় পার করতে হয় ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লকডাউনে ফাঁকা খাগড়াছড়ি, বাড়ছে শনাক্ত

সারা দেশের মতো দ্বিতীয় দফায় সরকারের ঘোষিত লকডাউন চলছে পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়িতে। প্রথম দফার লকডাউন …

Leave a Reply