এই সরকারের আমলে চুক্তি পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন হবে

RHDC Picture -08-07-15-02প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই বলেছেন আওয়ামীলীগ শান্তি চুক্তি করেছে এবং আওয়ামীলীগ সরকারই এই চুক্তি বাস্তবায়ন করবে। চুক্তি নিয়ে হতাশার কিছুই নেই। চুক্তির অনেক ধারায় ইতোমধ্যে বাস্তবায়ন হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবারই তাঁর কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে চুক্তির ব্যাপারে বলেছেন। তিনি বলেছেন, ‘পার্বত্যাঞ্চলের দ্বন্দ্ব-সংঘাত নিয়ে তোমরা না যতটুকু চিন্তা করো তার চেয়ে বেশি আমি উপলব্ধি করি। পার্বত্যাঞ্চলে যে রক্ত ঝরছে তা আমার চেয়ে বেশি কেউ অনুভব করতে পারবে না। কারণ এতে কারো না কারো স্বজন হারাচ্ছে। আর স্বজন হারানোর বেদনা আমার চেয়ে কেউ বেশি অনুভব করতে পারবে না’।

বুধবার বিকেলে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ মিলনায়তনে পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয় ও সংগঠনের মাঝে সাংস্কৃতিক সরঞ্জাম ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, একসময় পার্বত্যাঞ্চলের মানুষ চরম নিরাপত্তাহীনতায় ছিলেন। কোনো ধর্মের লোকই শান্তিতে ছিলো না। দ্বন্দ্ব-সংঘাতের কারণে পার্বত্যাঞ্চল দীর্ঘদিন উন্নয়ন বঞ্চিত ছিলো। কিন্তু শান্তিচুক্তির পর এই পার্বত্যাঞ্চলের দৃশ্যপট আমুল পরিবর্তন হয়েছে। তিনি প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, শীঘ্রই শান্তি চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন করা হবে।

রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম জাকির হোসেন, রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য হাজি মুছা মাতব্বর, পরিষদ সদস্য অংসুই প্রু চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাজি কামাল উদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের সদস্য ও ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কমিটির আহবায়ক ত্রিদিব কান্তি দাশ।

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী পার্বত্য অঞ্চলের শিক্ষার গুণগত মান নিয়ে বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে শিক্ষকদের ভূমিকা বেশি রাখতে হবে। পার্বত্য দুর্গম এলাকার শিক্ষার মান বাড়াতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই পার্বত্য অঞ্চলের দুর্গম এলাকার স্কুলগুলোতে আবাসিক ভবন স্থাপনের কাজ হাতে নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, শুধু আবাসিক বিদ্যালয় স্থাপন করলে হবে না। শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষায় সুশিক্ষিত করে তুলতে হবে। তিনি শিক্ষকদের বেতনভাতা বৃদ্ধি করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলেও জানান।

পরে প্রতিমন্ত্রী বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কর্মকা- বাড়াতে বাদ্য যন্ত্র ও বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠনকে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেন।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

কারাতে ফেডারেশনের ব্ল্যাক বেল্ট প্রাপ্তদের সংবর্ধনা

বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশন হতে ২০২১ সালে ব্ল্যাক বেল্ট বিজয়ী রাঙামাটির কারাতে খেলোয়াড়দের সংবধর্না দিয়েছে রাঙামাটি …

Leave a Reply

%d bloggers like this: