নীড় পাতা » খাগড়াছড়ি » উন্নয়ন বোর্ডে কুজেন্দ্র’কে চায় খাগড়াছড়িবাসি

উন্নয়ন বোর্ডে কুজেন্দ্র’কে চায় খাগড়াছড়িবাসি

CHTDB-pic-01মূলত: খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান; এই তিন পার্বত্য জেলার সামগ্রিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ১৯৭৬ সালে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড গঠন করা হয়। শুরু থেকেই পদাধিকার বলে এর চেয়ারম্যান হতেন বিভাগীয় কমিশনার ও সেনাবাহিনীর চট্টগ্রাম এরিয়া কমান্ডার। পার্বত্য শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত হবার পর হতে উন্নয়নের প্রধানতম প্রতিষ্ঠানটিতে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা চেয়ারম্যান হিসেবে নিযুক্ত হন। সর্বশেষ সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হবার কারনে আইনী বাধ্যবাধকতায় বান্দরবানের সংসদ সদস্য বীর বাহাদুর পদত্যাগ করলে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হন পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রনালয়ের সচিব নববিক্রম কিশোর ত্রিপুরা। বীর বাহাদুর পুনরায় এমপি হয়ে পার্বত্য মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী নিযুক্ত হওয়ায় এবার উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান হচ্ছেন কে, তা নিয়ে জোরেশোরে গুঞ্জন শুরু হয়েছে।
খাগড়াছড়ির অনেকেই মনে করছেন সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাই পাহাড়ের সবচেয়ে প্রভাবশালী উন্নয়ন প্রতিষ্ঠানটির দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন। যথারীতি চেষ্টা তদরিব করছেন কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। খাগড়াছড়ির আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রত্যাশাও তেমনটাই। দীর্ঘদিন ধরে উন্নয়ন বঞ্চিত সচেতন জনগন খাগড়াছড়ি হতেই বোর্ড চেয়ারম্যান নিযুক্ত করার দাবী তুলেছেন।
রাঙ্গামাটি আসনের দীর্ঘদিনের সংসদ সদস্য ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এবারের নির্বাচনে হেরে যাওয়ায়, হারিয়েছেন তাঁর মন্ত্রীত্ব। শোনা যাচ্ছে, পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রভাবশালী এই নেতা এবার উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান হতে চান। অনির্বাচিত হওয়ায় তাকে চেয়ারম্যান করা নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন।
তবে উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক কর্মকর্তা ও রাজনীতিক মনীন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেন, ‘অনির্বাচিত যোগ্য যে কোন ব্যক্তিই উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান হবার ক্ষেত্রে কোন বাধা নেই। তবে, ৯৬ সালের পর হতে এই প্রতিষ্ঠানটিতে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব দেয়ার প্রচলন শুরু হয়। নির্বাচিতরা চেয়ারম্যান হলে উন্নয়নে জনসম্পৃক্ততা বেশি থাকে। রাষ্ট্রপতির অর্ডিনেন্সের মাধ্যমেই মূলত: বোর্ডের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হয়ে থাকেন।’
আইন বা অর্ডিনেন্সে যাই থাক; খাগড়াছড়ির রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও সুশীল সমাজের মানুষরাও চান উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হোক কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকেই। জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক এসএম শফি খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান করার জোর দাবী জানিয়েছেন।
নারীনেত্রী শেফালিকা ত্রিপুরা বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়ন ও শান্তির স্বার্থে কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাকে উন্নয়ন সংস্থাটির চেয়ারম্যান করার দাবী করছি।’
উল্লেখ্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড পাহাড়ের আর্থ-সামাজিক ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের প্রধানতম সংস্থা। এখানে বছরে অন্তত ১শ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়ে থাকে। এছাড়াও ইউএনডিপি, বিশ্বব্যাংকসহ উন্নয়ন সংস্থাগুলোর পক্ষ হতেও বরাদ্দ পাওয়া যায়।

পার্বত্য সচিবের বক্তব্য
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব ও উন্নয়ন বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নববিক্রম কিশোর ত্রিপুরা জানান, ‘পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান কে হবেন; তা প্রধানমন্ত্রীর ব্যাপার। বিষয়টি পলিটিক্যাল। তবে, প্রক্রিয়া তো চলছে। আমি জানি অনেকেই চেষ্টা তদরিব করছেন। এছাড়া পার্বত্য জেলা পরিষদগুলোতে পরিবর্তনের গুঞ্জন সম্পর্কে বলেন, সত্যিকার অর্থে বিষয়টি আমার জানা নেই।’

Micro Web Technology

আরো দেখুন

নারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অবদান রাখবে কিশোরী ক্লাব

রাঙামাটির বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও) প্রোগ্রেসিভের বাস্তবায়নে ‘আমাদের জীবন, আমাদের স্বাস্থ্য, আমাদের ভবিষ্যৎ’ এই প্রকল্পের …

Leave a Reply