নীড় পাতা » বান্দরবান » ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা

১৫ আগস্ট স্মরণে

ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বান্দরবানে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ করেছে ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টার। শুক্রবার সকালে বান্দরবান আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ফিতা কেটে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। ফিতা কাটা শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক প্রদান করেন পার্বত্য মন্ত্রী। পরে শুরু হয় আলোচনা সভা।

জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ৬৯ পদাতিক ব্রিগেডের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শহিদুল এমরান এএফডব্লিউ, পিএসসি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডা: অংসুই প্রু মার্মা, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডাঃ অংচালু, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য মোঃ শফিকুর রহমান ও কাজল কান্তি দাশ, পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের চেয়ারম্যান লক্ষীপদ দাশ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী অমল কান্তি দাশ, প্রেসক্লাবের সভাপতি মনিরুল ইসলাম মনু, ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পারখুম লুসাই সহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

এই সময় সভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, বান্দরবানে বন্যা পরবর্তী বিভিন্ন রোগ বালাই থেকে জনসাধরণকে সেবা প্রদানের জন্য ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান কার্যক্রম একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গু রোগ ছড়িয়ে পড়েছে, তাই আমাদের সকলকে সচেতন থাকতে হবে। বাড়ির আশপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে এবং রোগ ব্যাধি দেখা দিলে দেরি না করে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি আরো বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী যেকোনো দুর্যোগের সময় জনগণের পাশে থেকে বিভিন্ন ধরনের সাহায্য ও সহযোগিতা করে, সেনাবাহিনীর সদস্যরা দেশের মানুষের নিরাপত্তার পাশাপাশি বিভিন্ন সেবা করে জনগণের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে ।

পার্বত্য মন্ত্রী এসময় আরো বলেন, একসময় পার্বত্য জেলায় শান্তি বাহিনী আর মশা বাহিনীর (ম্যালেরিয়া) অত্যাচারে এলাকায় মানুষ বসবাস করা কষ্টকর ছিল, কিন্তু আজ বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় চলে এসেছে। সরকারের আন্তরিকতায় আজ স্বাস্থ্য সেবার মান অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। বক্তব্যের শেষ পর্যায়ে মন্ত্রী বান্দরবানে কোন ব্যক্তি ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হলে তার সকল চিকিৎসাভার গ্রহণ করার ও ঘোষণা দেন এবং সকলকে স্বাস্থ্য সচেতন হওয়ার প্রতি অনুরোধ জানান।

বান্দরবান সেনা রিজিয়ন, স্বাস্থ্য বিভাগ ও চট্টগ্রামের চিকিৎসক টিমের সহযোগিতায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের আয়োজনে এই চিকিৎসা সেবা বিনামুল্যে ঔষধ বিতরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় মেডিসিন, গাইনি, দন্ত, চক্ষুসহ বিভিন্ন বিভাগের ৩০জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার বিনামূল্যে এই চিকিৎসা সেবা কার্যক্রমে অংশ নেয় এবং জেলা ও উপজেলায় প্রায় ৩ হাজার গরীব ও অসহায় রোগী সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবায় সেবা ও ঔষধ গ্রহণ করে। এদিকে ইমানুয়েল মেডিকেল সেন্টারের পক্ষ থেকে সাধারণ জনগণকে এই ধরণের সেবা প্রদান করায় এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লামায় সহায়তা পেল কর্মহীন মানুষ

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী অসহায় ও দুস্থ মানুষের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনী মানবিক সহায়তা করে চলেছে। …

Leave a Reply