নীড় পাতা » পাহাড়ের সংবাদ » ইউপিডিএফকে নিষিদ্ধ করার দাবি জনসংহতির

ইউপিডিএফকে নিষিদ্ধ করার দাবি জনসংহতির

Monogramপাহাড়ী ছাত্র পরিষদের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির মানিকছড়ি থানা সংগঠক আপ্রুঅং মারমা ওরফে পেসকা (৩২) হত্যাকান্ডের জন্য ইউপিডিএফকে দায়ি করে পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা কায়েমের স্বার্থে অবিলম্বে চুক্তি বিরোধী ইউপিডিএফকে নিষিদ্ধ করার এবং আপ্রুঅং মারমাকে হত্যাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি।
মঙ্গলবার দেয়া এক বিবৃতিতে সংগঠনটি এই দাবি জানায়। সংগঠনের তথ্য ও প্রচার বিভাগের বিনয় কুমার ত্রিপুরা সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ইউপিডিএফ নিরস্ত্র ও নিরীহ মানুষকে এবং গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলনরত জনসংহতি সমিতির কর্মিদের একের পর এক অপরহরণ, মুক্তিপণ আদায় ও হত্যা করে দিনের পর দিন পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে চলেছে এবং পার্বত্য চট্টগ্রামের পরিস্থিতিকে একটি ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে। কিন্তু সরকার সন্ত্রাসী সংগঠন ইউপিডিএফকে নিষিদ্ধ করা ও তাদের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বন্ধ করার ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ না দিয়ে দিনের পর দিন নির্লিপ্ত ও নির্বিকার ভূমিকা পালন করেছে।
বিবৃতিতে ইউপিডিএফের সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের কর্তৃক নিরস্ত্র আপ্রুঅং মারমাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে ইউপিডিএফকে নিষিদ্ধ করার দাবি পুনর্ব্যক্ত করা হয়।
প্রসঙ্গত, গত ৪ নভেম্বর খগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলা সদরে নিজ বাড়ির পাশে গুলি করে হত্যা করা হয় পেসকা মারমাকে। জনসংহতি সমিতি এই হত্যাকান্ডের জন্য ইউপিডিএফকে দায় করলেও ইউপিডিএফ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

লংগদুতে ১০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন

খাদ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার  রাঙামাটির লংগদু …

Leave a Reply